June 28, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, June 3rd, 2022, 8:01 pm

শেষ দিকের গোলে হার এড়াল পর্তুগাল

অনলাইন ডেস্ক :

দারুণ পারফরম্যান্সে ম্যাচের প্রথম ভাগে এগিয়ে যাওয়া স্পেন আধিপত্য করল বাকি সময়েও। জয়ের পথেই ছিল তারা। কিন্তু সাত বছর পর দেশের হয়ে মাঠে নামা রিকার্দো হোর্তা শেষ দিকে ছড়ালেন আলো। তার গোলেই ড্রয়ের স্বস্তিতে ফিরল পর্তুগাল। সেভিয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে উয়েফা নেশন্স লিগের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্রয়ে হয়েছে। ‘এ’ লিগের ২ নম্বর গ্রুপের ম্যাচটিতে স্পেন এগিয়ে যায় আলভারো মোরাতার গোলে। শেষ দিকে বদলি নেমে সমতা টানেন হোর্তা। দুই মাস আগের সবশেষ ম্যাচের দলে ৬টি পরিবর্তন আনেন স্পেন কোচ লুইস এনরিকে। তাদের প্রথমার্ধের পারফরম্যান্স ছিল সন্তোষজনক। বিশেষভাগে উল্লেখযোগ্য গাভি, ৮১তম মিনিটে উঠে যাওয়ার আগ পর্যন্ত দারুণ খেলেছেন ১৭ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার। গত মার্চে বিশ্বকাপ প্লে-অফে দারুণ দুটি জয়ে কাতারের টিকেট নিশ্চিত করা পর্তুগাল এ দিন খেলতে নামে তিনটি পরিবর্তন এনে। প্রথম ভাগের তুলনায় দলটির দ্বিতীয়ার্ধের পারফরম্যান্স ছিল সন্তোষজনক। ম্যাচের চতুর্থ মিনিটেই ভালো একটা সুযোগ পায় স্পেন; তবে ডি-বক্সের ভেতর থেকে গাভির নেওয়া শট রুখে দেন ডিফেন্ডার পেপে। অষ্টাদশ মিনিটে প্রথম সেরা সুযোগটি পায় পর্তুগাল। কিন্তু গোল করার মতো পজিশনে বল পেয়েও ক্রসবারের ওপর দিয়ে মারেন রাফায়েল লেয়াও। দুর্দান্ত এক প্রতি-আক্রমণে ২৫তম মিনিটে এগিয়ে যায় স্পেন। দারুণ পারফরম্যান্সে আলো ছড়ানো গাভি মাঝমাঠ থেকে বল পায়ে এগিয়ে রক্ষণচেরা থ্রু পাস বাড়ান ডানদিকে। বল ধরে গতিতে ডিফেন্ডারদের পেছনে ফেলে ডি-বক্সে মোরাতাকে খুঁজে নেন পাবলো সারাবিয়া। বিনা বাধায় নিচু শটে কাছের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেন ইউভেন্তুস ফরোয়ার্ড। চার মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণও হতে পারত। তবে কার্লোস সলেরের শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। ফিরতি বল পেয়ে দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় উড়িয়ে মারেন ভালেন্সিয়ার মিডফিল্ডার সলের। প্রথমার্ধে আক্রমণে বিবর্ণ পর্তুগাল বিরতির পরও তেমন সুবিধা করতে পারছিল না। ৫৯তম মিনিটে ভালো একটা সুযোগ পেয়েও ফের ব্যর্থ হন লেয়াও। ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে এক ঝটকায় প্রতিপক্ষের একজনকে ফাঁকি দিয়ে শট নেন এসি মিলানের উইঙ্গার। তবে দারুণ নৈপুণ্যে পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক উনাই সিমোন। এরপরই মিডফিল্ডার ওতাভিওকে তুলে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে নামান পর্তুগাল কোচ। তবে উল্লেখযোগ্য কিছুই করতে পারেননি তিনি, ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। ১০ মিনিট পর লেয়াওকে বসিয়ে নামান হোর্তাকে। ৮২তম মিনিটের গোলে দলের হার এড়ানোর পাশাপাশি ফেরাটাকে রাঙান তিনি। ডান দিক থেকে জোয়াও কানসেলোর দারুণ ক্রসে ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে নিচু শটে দলকে উল্লাসে ভাসান ব্রাগার এই ফুটবলার। জাতীয় দলের হয়ে এটাই তার প্রথম গোল। চার মিনিট পর আবারও এগিয়ে যেতে পারত স্পেন। সারাবিয়ার দারুণ ভলি ঝাঁপিয়ে কোনোমতে ফেরান গোলরক্ষক। বল চলে যায় পেনাল্টি স্পটের কাছে ফাঁকায় দাঁড়ানো জর্দি আলবার কাছে, বিনা বাধায় হেড করেন তিনি; কিন্তু লক্ষ্যের ধারে কাছেও ছিল না সেটা। জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়েও আসরের শুরুটা ভালো করতে পারল না গতবারের রানার্সআপ স্পেন। পরের ম্যাচে আগামীকাল রোববার চেক রিপাবলিকের মুখোমুখি হবে তারা। একই দিনে পর্তুগাল ঘরের মাঠে খেলবে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে। এই গ্রুপের আরেক ম্যাচে চেক রিপাবলিক ঘরের মাঠে ২-১ গোলে সুইসদের হারিয়ে শুভসূচনা করেছে।