May 26, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, April 15th, 2022, 8:23 pm

শ্রীলঙ্কায় প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের সামনে অবস্থান বিক্ষুব্ধ জনতার

অনলাইন ডেস্ক :

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ অব্যাহত আছে। এর মধ্যে কলম্বোয় প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের সামনে তাঁবু টাঙিয়ে অবস্থান নিয়েছে বিক্ষুব্ধ লোকজন। এদিকে, বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা ও অভিশংসন প্রস্তাবে সই করেছে দেশটির পার্লামেন্টের মূল বিরোধী দল। এ অবস্থায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে। শ্রীলঙ্কায় অর্থনৈতিক সংকটে এক মাসের বেশি সময় ধরে চলা বিক্ষোভের মূল কেন্দ্র এখন বাণিজ্যিক রাজধানী কলম্বো। প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের কার্যালয়ের সামনে তাঁবু টাঙিয়ে বিক্ষোভ চলছে বেশ কদিন ধরে। রাতদিন সেখানেই অবস্থা করছেন বিক্ষুব্ধরা। গোতাবায়ার পদত্যাগের দাবিতে চলছে স্লোগান। তাদের অভিযোগ, সরকারের অব্যবস্থাপনার কারণেই দেশে অর্থনৈতিক সংকট দেখা দিয়েছে। তাই প্রেসিডেন্ট পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার হুঁশিয়ারি তাদের। আন্দোলনে অংশ নেয়া একজন আন্দোলনকারী বলেন, আমরা অর্থ উপার্জন করছি ঠিকই, কিন্তু সেটা যথেষ্ট নয়। মানুষ এখানে ব্যাপক কষ্টে আছে। এ অবস্থা বেশির ভাগ নাগরিকের। আমরা যদি রাজপথে না নামি, অবস্থা আরও খারাপ হবে। এমন পরিস্থিতিতে বুধবার বিক্ষোভকারীদের আলোচনায় বসার প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সরকারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশ বর্তমানে যেসব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি, তা নিরসনে আন্দোলনকারীদের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনায় প্রস্তুত সরকার। এদিকে, বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা ও অভিশংসন প্রস্তাবের উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির প্রধান বিরোধী দল-এসজেবি। বুধবার এতে সই করেছেন দলটির ৫০ সদস্য। তবে এটি পার্লামেন্টে তুলতে অন্যান্য বিরোধী দলের ৪০ সদস্যের সম্মতি দরকার। এর আগে,গত মঙ্গলবার রিজার্ভ ঘাটতি ও অর্থনৈতিক দুর্দশার কারণে ৫ হাজার ১শো কোটি ডলারের বৈদেশিক ঋণ পরিশোধ করতে পারবে না বলে জানিয়ে দেয় সরকার। একইসঙ্গে নিজেদের বৈদেশিক ঋণখেলাপি হিসেবেও ঘোষণা করে তারা। এর পরদিনই, প্রবাসীদের দেশে নগদ অর্থ পাঠানোর আহ্বান জানালো শ্রীলঙ্কার সরকার।