October 3, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, September 13th, 2022, 7:27 pm

সখীপুরে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় প্রাণ গেল এক কলেজ শিক্ষার্থীর

জেলা প্রতিনিধি, সখীপুর (টাঙ্গাইল) :
মাঠে ফুটবল খেলা দেখার সময় এক স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় প্রাণ দিতে হলো মাজহারুল ইসলাম (২২) নামের এক কলেজ ছাত্রকে। বখাটেদের হামলায় গুরুতর আহত হওয়ার তিনদিন পর সোমবার রাত দেড়টায় রাজধানী ঢাকার নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কলেজ ছাত্র মারা যায়।
নিহত মাজহারুল টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার কালিয়ান গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে। সে টাঙ্গাইলের সরকারি সা’দত কলেজের সম্মান প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় একদিন আগে সখীপুর থানায় মামলা হলেও খুনের মামলা হিসেবে ধারা সংযোজন করতে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতে আবেদন পাঠিয়েছেন সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মজিবর রহমান।
পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার কালিয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ওই গ্রামের বিবাহিত বনাম অবিবাহিতের ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। ওই এলাকার কিছু মেয়ে খেলা দেখতে মাঠে আসে। ওই এলাকার ইয়ারুল নামে এক বখাটে খেলার মাঠে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করে। এ সময় মাজহারুল উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করলে ইয়ারুলের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি হয়। এ ঘটনার জেরে ওই দিন সন্ধ্যায় ইয়ারুলের নেতৃত্বে একদল যুবক মাজহারুলের ওপর হামলা করে। গুরুতর আহত মাজহারুলকে ওই রাতেই স্বজনেরা প্রথমে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে রাজধানী ঢাকার নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করে। সোমবার রাত দেড়টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাজহারুল মারা যায়। এ ঘটনায় সোমবার রাতে মৃত্যুর খবর শোনার আগে মাজহারুলের বাবা বাদী হয়ে উপজেলার কালিয়ান গ্রামের ফরিদ হোসেনের ছেলে ইয়ারুলকে (২০) প্রধান আসামি করে সাতজনের বিরুদ্ধে মারামারির মামলা করেন। সখীপুর থানায় খুনের বিষয়টি জানার পর মঙ্গলবার বিকেলে মামলার ধারায় ৩০২ সংযোজন করার জন্য আদালতে আবেদন করা হয়েছে।
সখীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মজিবর রহমান এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে মঙ্গলবার বিকেলে এ প্রতিনিধিকে বলেন, ঘটনার পর থেকেই আসামিরা পলাতক রয়েছেন। আসামিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান চলছে।