May 26, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, April 8th, 2022, 8:49 pm

সব দেশে টিকা দেয়ার লক্ষ্য পূরণে সহায়তা করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

কোভ্যাক্স অ্যাডভান্স মার্কেট কমিটমেন্ট (এএমসি) অনুযায়ী সব দেশে টিকা দেয়ার লক্ষ্য পূরণে সহায়তা করার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি তাদের অবদান বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘আমি সকল অংশীজনদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি সকল দেশের টিকাকরণ লক্ষ্যে পৌঁছাতে সহায়তা করার জন্য একসঙ্গে কাজ করতে। আমি উন্নয়ন অংশীদারদের কোভ্যাক্স এএমসি-তে তাদের অবদান এবং ভ্যাকসিন বাড়ানোর জন্যও আহ্বান জানাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রী জার্মানি ও জিএভিআই আয়োজিত অ্যাডভান্স মার্কেট কমিটমেন্ট (এএমসি) শীর্ষ সম্মেলনে এক ভিডিও বার্তায় এই আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, দুর্ভাগ্যবশত, কিছু দেশ এখনও তাদের টিকার লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অনেক দূরে রয়েছে। এই দেশগুলো আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের বিশেষ মনোযোগ ও সমর্থন পাওয়ার যোগ্য।

তিনি বিশ্বকে নিশ্চিত করে বলেন, বাংলাদেশ ভ্যাকসিন সমতা নিশ্চিত করতে ভূমিকা পালনে প্রস্তুত এবং জিএভিআই ও কোভ্যাক্স এএমসি এর সঙ্গে সর্বদা কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা জনস্বাস্থ্যের জরুরি পরিস্থিতিতে কার্যকরভাবে সাড়া দিতে আন্তর্জাতিক সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তাকে আরও জোরদার করেছে।

তিনি বলেন, ভবিষ্যত মহামারি মোকাবিলায় আমাদের অবশ্যই প্রয়োজনীয় সম্পদ ও দক্ষতাসহ কোভ্যাক্স প্ল্যাটফর্মটিকে সমর্থন করতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে শক্তিশালী স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা না থাকলে মহামারির প্রভাব বাংলাদেশে ধ্বংসাত্মক হতে পারত। তিনি বলেন, ‘আমরা সংক্রমণকে সহনীয় পর্যায়ে রাখতে সক্ষম হয়েছি এবং এখন সংক্রমণের হার একদম কমিয়ে আনতে পেরেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত লক্ষ্যমাত্রার ৯০ শতাংশের বেশি মানুষকে বিনামূল্যে টিকা দিয়েছে।

উদ্বোধনী অধিবেশনে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজ, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো, সেনেগালের প্রেসিডেন্ট ম্যাকি সাল এবং গাভি বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জোসে ম্যানুয়েল বারোসো বক্তব্য দেন।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি জে ব্লিঙ্কেন, তিউনিসিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মন্ত্রী নাজলা বাউডেন এবং জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসও এতে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন।

—ইউএনবি