May 27, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, March 9th, 2022, 7:18 pm

সরিষার ফলন ও দাম পেয়ে খুশি চাঁপাইনবাবগঞ্জের চাষিরা

চলতি মৌসুমে চাঁপাইনবাবগঞ্জে সরিষার ভালো ফলন হয়েছে। সেই সঙ্গে বেশ ভাল দামে সরিষা বিক্রিও হচ্ছে। তাই উৎপাদিত সরিষার ভালো ফলন ও দাম পেয়ে খুশি চাষিরা।

সরেজমিনে বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে, খেত থেকে ফসল ঘরে তোলার কাজে ব্যস্ত চাষিরা। কোথাও চলছে সরিষার গাছকাটা আবার কোথাও চলছে মাড়াইয়ের কাজ।

চাষিরা জানান, এবার অনুকূল আবহাওয়া ও রোগ বালাইয়ের তেমন উপদ্রব না থাকায় ফলন ভালো হয়েছে। বিঘা প্রতি গড়ে সাত মণ করে ফলন পাওয়া গেছে। আর এবার শুরু থেকেই সরিষার বাজার দর ভালো রয়েছে। ফলে সরিষা আবাদ করে কৃষকরা লাভবান হয়েছেন।

সদর উপজেলার সুন্দরপুর এলাকার চাষি মোশাররফ হোসেন জানান, এবার তিনি তিন বিঘা জমিতে সরিষা আবাদ করেছিলেন। আবহাওয়া ভালো থাকায় ফলন ভালো পেয়েছেন। প্রথম দিকেই দুই হাজার আটশ টাকা মণ দরে তিনি সরিষা বিক্রি করেছে। পরে দর আরও বেড়েছে।

নাচোল উপজেলার নেজামপুর এলাকার চাষি আলমগীর জানান, বৃষ্টিতে কিছু নষ্ট করেছিল যার কারণে ফলন একটু কম হয়েছে। বিঘা প্রতি ৬ মণ ফলেছে। দর তিন হাজার পাঁচশ টাকা মণ পেয়েছেন। খরচ বাদ দিয়ে তার ছয় হাজার টাকা লাভ হয়েছে বলে জানান তিনি।

একই উপজেলার ঘিয়ন এলাকার চাষি আবদুস সামাদ জানান, দুই বছর আগে সরিষার দর তেমন ছিল না। ১২শ থেকে ১৩শ টাকা মণ দর ছিল। কিন্তু গত বছর থেকে সরিষার দর বেড়েছে। গতবার তিনি আড়াই বিঘায় সরিষার আবাদ করেছিলেন। দর ভালো পাওয়ায় এবার তিনি চার বিঘা জমিতে সরিষা করেছেন।

তিনি জানান, সরিষা আবাদ এখন লাভজনক। আর এ কারণে কৃষকদের সরিষা চাষে আগ্রহ বেড়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে চাঁপাইনবাবঞ্জের ১৯ হাজর হেক্টর জমিতে সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়। তবে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ১৯ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপপরিচালক নজরুল ইসলাম জানান, কৃষকদের সরিষা আবাদে উদ্বুদ্ধ করতে সরকারের প্রণোদনা প্রকল্পের আওতায় বিনা মূল্যে বীজ, সার দেয়া হয়েছিল। কৃষকরা উচ্চ ফলনশীল বারি সরিষা-১৪ ও বারি সরিষা-১৫, বারি সরিষা-১৭, বিনা সরিষা-৪, বিনা সরিষা-৯ জাতের সরিষার চাষ করেছে। ফলনও ভালো হয়েছে। বিঘা প্রতি গড়ে ফলন হয়েছে ৬ মণ।

চাষিরা এবার সরিষা আবাদ করে লাভবান হয়েছে। শুরু থেকেই সরিষার বাজার দর ভালো। বর্তমানে প্রতি মণ সরিষা তিন হাজার তিনশ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে বলে জানান তিনি।

—ইউএনবি