October 3, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, January 5th, 2022, 8:15 pm

সাকিব টেস্ট খেলবে কি না জানালেন পাপন

ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক :

টেস্ট ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে ক্রিকেট বোর্ডকে কিছুই জানাননি সাকিব আল হাসান। শেষ কথা অনুযায়ী দেশের হয়ে তিন ফরম্যাটে খেলার অঙ্গীকার করেছে সে। সময় সংবাদে এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। শুধু জাতীয় দলই না, সামনে নারী, এইচপি ও বয়সভিত্তিক দলগুলোতেও বিদেশি কোচ নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি। যুব দল এশিয়া কাপে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারলেও বিশ্বকাপ নিয়ে আশাবাদী বোর্ড প্রধান। পরিবার থাকে যুক্তরাষ্ট্রে। আর সাকিব যাযাবরের মতো এদেশ থেকে ওদেশে ঘুরে জাতীয় দলের হয়ে খেলছেন। করোনার জন্য প্রায় সব সিরিজই অনুষ্ঠিত হচ্ছে বায়োবাবলে। যার জন্য প্রতিটি সিরিজে দৈর্ঘ্য আগের চেয়ে বড় হচ্ছে। সাকিব নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর বাংলাদেশ দল খেলেছে ৮টি টেস্ট। এর মধ্যে মাত্র তিনটিতে ছিলেন এই অলরাউন্ডার। ইনজুরির জন্য মিস করেছেন দুটি ম্যাচ। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সাকিব বলেছিলেন, জাতীয় দলের হয়ে তিন ফরম্যাট খেলা দিন দিন কঠিন হয়ে যাচ্ছে। স্পষ্ট করে এও জানান, হয়তো ছেড়ে দিবেন টেস্ট ক্রিকেট। যদিও এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত ক্রিকেট বোর্ডকে কিছুই জানাননি দেশসেরা ক্রিকেটার। অবশ্য বোর্ডের চাওয়া দেশের হয়ে তিন ফরম্যাটেই খেলুক সাকিব।
পাপন বলেন, সাকিব টেস্ট ক্রিকেট ছেড়ে দিতে পারে এ ব্যাপারে আমার সঙ্গে কোনো কথা হয়নি। তবে ওর ব্যাপারে একটা অনিশ্চয়তা তো আছেই। কারণ সে কখন খেলবে আর কখন খেলবে না, এটা নিয়ে সবসময়ই একটা অনিশ্চয়তা কাজ করে। আর এটি দলের জন্য যেমন খারাপ প্রভাব পড়ে, তেমনি তার নিজের ক্যারিয়ারের জন্যও খারাপ। বিসিবিপ্রধান আরও বলেন, আমার সঙ্গে তার সবশেষ যে কথা হয়েছে, যতদূর জানি সে সব ফরম্যাটেই খেলবে। নিঃসন্দেহে সে আমাদের সেরা খেলোয়াড়। কিন্তু বেস্ট খেলোয়াড় হয়ে কী লাভ, যদি দেশের জন্য সবসময় খেলতে না পারে।
আগামী মাসে জাতীয় দলের ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে যোগ দেবেন জেমি সিডন্স। ১০ বছরেরও বেশি সময় পর আবারও বাংলাদেশের ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন এই অস্ট্রেলিয়ান। বোর্ডের পরিকল্পনা আছে কোচিং প্যানেলকে আরও সমৃদ্ধ করার। জাতীয় দলের বাইরে অন্য পর্যায়েও কোচ খুঁজছে বিসিবি।
পাপন বলেন, কোচের ব্যাপারে আমাদের ধারাবাহিক একটা প্রচেষ্টা রয়েছে। আমরা ভালো কোচ খুঁজছি।
অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলতে রাকিবুল-তামিমরা এখন ক্যারিবিয়ানে। এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার বাসনা অধরা রেখেই বিশ্বকাপ মিশনে গেছে দল। অবশ্য তাদের পারফরম্যান্সে অখুশি নয় বোর্ড।