February 9, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, December 29th, 2022, 8:45 pm

পর্যটকদের দর্শনীয় স্থান বাইক্কা বিল আগামী ৯দিন বন্ধ

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার:

সিলেটের পর্যটন শিল্পে অন্যতম দর্শনীয় স্থান মৌলভীবাজারের হাইল হাওরের বাইক্কা বিলের নির্মিত স্থাপনা সংস্কারকাজের জন্য টানা ৯দিন বন্ধ থাকবে। ২৬ ডিসেম্বর সোমবার থেকে হাইল হাওরের বাইক্কা বিল পাখির অন্যতম এ দর্শনীয় স্থান উপজেলা প্রশাসন বন্ধ করে দিয়েছে। আগামী বছর ২০২৩ সালের ৩ জানুয়ারী পর্যন্ত পর্যটকদের জন্য এ দর্শনীয় স্থানটি বন্ধ থাকবে। সংস্কার কাজ শেষে করার পর জনগন ও পর্যটকদের জন্য বাইক্কা বিল উম্মুক্ত করা করা হবে।

এদিকে বৃহস্পতিবারও দেখা যায়, প্রচুর পর্যটক বাইক্কা বিলের সুন্দর্য্য দর্শনের জন্য ভীর জমিয়েছেন। তারা অনেকেই জানান, সংস্কার কাজের জন্য বন্ধ থাকার কথা তারা না জেনে এসেছেন।

সিলেটের বালাগঞ্জের আউয়াল নামের এক পর্যটক জানান, তারা কয়েকজন বন্ধু মিলে এসেছিলেন বাইক্কা বিলের পাখি দেখার জন্য। কিন্তু বন্ধ থাকার কারণে তারা হতাশ হয়েছেন।

বাইক্কা বিল ব্যবস্থাপনার দায়েত্বে থাকা বড়গাঙ্গিনা সম্পদ ব্যবস্থাপনা কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য মিন্নত আলী বলেন, ‘গতকাল থেকে বাইক্কা বিলে রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। গতকাল অনেক পর্যটক না জেনে এসেছিলেন। আমরা তাদের বুঝিয়ে ফেরত পাঠিয়েছি। এখানে পর্যটকদের জন্য তৈরি করা ব্রিজ, গাড়ি পার্কিং ইত্যাদি সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ হচ্ছে। অনেক জায়গায় রং করা হচ্ছে। এসব কাজ সম্পন্ন হলে এখানকার সৌন্দর্য আরও বাড়বে।’

শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলী রাজিব মাহমুদ মিঠুন বলেন, সংস্কারকাজের মধ্যে ব্রিজ, পার্কিং ব্যবস্থা, শৌচাগার সংস্কার করা হবে। এখানে পর্যটকদের জন্য বিভিন্ন প্রাণীর ছবি বাধাই করা রয়েছে।

যেগুলো প্রায় নষ্ট হয়ে গেছে। এসব নতুন করে লাগানো হচ্ছে। এসব কাজের জন্য মূলত ৯ দিন পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। এই সময়টুকু পর্যটকদের ধর্য্য ধরার জন্য তিনি অনুরোধ করেন।

পাখি ও মাছের অভয়াশ্রম বাইক্কা বিলে সারা বছরই পাখির আনাগোনা থাকে। তবে শীতকালে এখানে অতিথি পাখি দেখা যায়। এছাড়াও বাইক্কা বিলে শাপলা ও পদ্মফুলও পর্যটকদের আরো মুগ্ধ করে। পাখি দেখতে পর্যটকদের জন্য এখানে তৈরী করা হয়েছে ওয়াচ টাওয়ার। প্রায় সারা বছরই এখানে পর্যটকেরা ঘুরতে আসেন।