July 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, May 25th, 2022, 9:04 pm

সিলেট নজরুল পরিষদের আয়োজনে কবি নজরুলের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী পালন

জেলা প্রতিনিধি, সিলেট :

সিলেট নজরুল পরিষদের আয়োজনে বাংলাদেশের জাতীয় কবি, বিদ্রোহী কবি, সাম্যের কবি, প্রেমের কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় রিকাবীবাজারসস্থ কবি নজরুল অডিটোরিয়ামের মুক্তমঞ্চে জাতীয় কবির প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সিলেটের সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ।

এসময় শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আয়োজক সংগঠন সিলেট নজরুল পরিষদ, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সিলেট, নজরুল সংগীত শিল্পী পরিষদ সিলেট বিভাগ, সিলেট ললিতকলা একাডেমি, উর্বশী আবৃত্তি পরিষদ সিলেটসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে জাতীয় কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আলোচনা করেন- সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জনাব আল আজাদ, বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী ও নজরুল সংগীত শিল্পী পরিষদ সিলেট বিভাগের সভাপতি হিমাংশু বিশ্বাস, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতি মন্ডলীর সদস্ মোকাদ্দেস বাবুল, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি ও কেন্দ্রীয় সদস্য শামসুল আলম সেলিম, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, চিত্রশিল্পী সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব ও কথাকলি সিলেটের সভাপতি শামসুল বাসিত শেরো, সিলেট ললিতকলা একাডেমির পরিচালক বিপ্রদাস ভট্টাচার্য, সিলেট নজরুল পরিষদের আহবায়ক আমিরুল ইসলাম বাবু ও সদস্য সচিব নীলাঞ্জন দাশ টুকু। পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত।

এসময় বক্তারা বলেন- ‘বাঙালি জাতিকে কবিতার মাধ্যমে জাগিয়ে তুলেছিলেন কাজী নজরুল ইসলাম। সাহিত্যের মধ্য দিয়ে এদেশের নিপীড়িত, শোষিত ও নিষ্পেষিত মানুষের মুক্তির কথা বলে গেছেন তিনি। এজন্য তিনি জাগরণের কবি, মুক্তির কবি। আজীবন সাম্যের গান গেয়েছেন। ধনী-দরিদ্র, নারী-পুরুষ, হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টানের মধ্যে সাম্য ছিল তার লেখনির মূল প্রতিপাদ্য। পরাধীনতার শিকল ছিঁড়ে কীভাবে আপন শক্তিতে জ্বলে উঠতে হয়, তা জাতিকে শিখিয়েছিলেন তিনি। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, যতদিন বাঙালি জাতি থাকবে, ততদিন তার সাহিত্যকর্ম প্রাসঙ্গিক হয়ে থাকবে।’

অনুষ্ঠানে সিলেটের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।