November 26, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, February 16th, 2022, 8:46 pm

সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ জয়িতা সংবর্ধনা

জেলা প্রতিনিধি, সিলেট :
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও সুদক্ষ পরিচালনায় বাংলাদেশ জেন্ডারভিত্তিক সমতার স্বীকৃতি আদায় করেছে। নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে সরকার কার্যকরী ভূমিকা রেখেছে। সমগ্র বাংলাদেশে নারীবান্ধব পরিবেশ তৈরি হয়েছে। প্রান্তিক নারী থেকে শুরু করে সবাইকে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়ে নারী উদ্যোক্তা তৈরি এবং নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হয়েছে। নারী শিক্ষায় বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষে আছে। দেশের অর্থনীতিতে নারীদের ভূমিকা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নেরই বাস্তবায়ন।
মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় সিলেটের উদ্যোগে সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ জয়িতা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
‘তোমরাই বাংলাদেশের বাতিঘর’ স্লোগানে বুধবার সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন এর সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে ভার্চয়ালি বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফরিদা পারভীন।
সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) দেবজিৎ সিংহ এর স্বাগত বক্তব্যে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহমেদ পিপিএম, এসএমপি পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফ, জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী এবং সৈয়দা জৈবুন্নেছা হক।
অসিত বরণ দাশ গুপ্ত ও প্রিয়াংকা দাস রায়ের যৌথ পরিচালনায় বিচারকমন্ডলীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ব্যারিস্টার আরশ আলী এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উপপরিচালক শাহিনা আক্তার।
সিলেট বিভাগের মোট ২০ জন জয়িতাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। তন্মধ্যে বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ট ৫ জন জয়িতা হলেন স্বর্ণলতা রায়, রাশেদা বেগম, মোছাম¥ৎ রহিমুন্নেছা চৌধুরী, হোসনে আরা বেগম ও বীথিকা দত্ত। তাছাড়া রানার্সআপ ৫জন এবং জেলা পর্যায়ে নির্বাচিত জয়িতার সংখ্যা ১০ জন।