November 28, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, July 27th, 2021, 9:01 pm

স্বতঃস্ফূর্তভাবে করোনার টিকা নিচ্ছে মানুষ

ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে রেজিস্টেশন পয়েন্টে সাধারণ মানুষের ভিড় বাড়ছে। ছবিটি মঙ্গলবার বঙবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল থেকে তোলা।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজধানীসহ সারাদেশে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক টিকা গ্রহণ করছেন। সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে আবেদন করে টিকাকার্ড সঙ্গে নিয়ে নির্ধারিত টিকাদান কেন্দ্রে যাচ্ছেন টিকাগ্রহণে ইচ্ছুক নারী-পুরুষরা। শহর-গ্রাম নির্বিশেষে লম্বা সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে টিকা নিচ্ছেন তারা। বর্তমানে দেশে চীনের সিনোফার্ম এবং যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার ও মর্ডানার টিকা দেয়া হচ্ছে। খুব শিগগিরই ফের ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত যুক্তরাজ্যের অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাদানও শুরু হবে।

করোনা ভাইরানের টিকা গ্রহনের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাধারণ মানুষের দীর্ঘ লাইন। ছবিটি মঙ্গলবার তোলা।

গত সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত টিকা গ্রহণের জন্য ১ কোটি ২৬ লাখ ১২ হাজার ৪৪৭ জন জন নিবন্ধন করেছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানা গেছে। সরেজমিন রাজধানীর সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে, এ কেন্দ্রটিতে টিকা গ্রহণের জন্য কয়েকশ মানুষ লম্বা সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে আছেন। টিকার জন্য পূর্বে নিবন্ধনকৃতরা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ক্ষুদে বার্তা পেয়ে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) টিকাকেন্দ্রে আসেন। তারা বলেন, এমন ভিড় হবে তারা ভাবতে পারেননি। তবে এখানে সুষ্টুভাবে টিকাদান কার্যক্রম চলছে বলে তারা জানান। পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজার থেকে টিকা নিতে আসেন মিনতি দাস। তিনি বলেন, এখানকার পরিবেশ খুব ভালো। সিরিয়ালের কারণে লাইনে দুই ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হলেও ভেতরের টিকাদান কেন্দ্রের পরিবেশ খুবই ভালো। পুরানাপল্টন থেকে এক দম্পতি টিকা নিয়ে বের হলেন। তারা জানালেন, গত ৮ জুলাই তারা রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে ক্ষুদে বার্তা পেয়ে টিকা নিতে এসেছিলেন। সুন্দর পরিবেশে টিকা নিয়ে বাসায় ফিরে যাচ্ছেন বলে জানান তারা। চলতি বছরের ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টিকাদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। প্রথম দফায় নিবন্ধনকারীরা অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড টিকা পেয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষকে দেয়া হয়েছে। গত সোমবার পর্যন্ত অ্যাস্ট্রাজেনেকার প্রথম ডোজের টিকা পেয়েছেন ৫৮ লাখ ২০ হাজার ৩৩ জন ও দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৪২ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬জন জন। ফাইজারের প্রথম ডোজের টিকা পেয়েছেন ৫০ হাজার ২৩৫ জন ও দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ২৮৮ জন। সিনোফার্মের প্রথম ডোজের টিকা পেয়েছেন ১৪ লাখ ৮৫ হাজার ১২ জন ও দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ১২ হাজার ৬৯ জন। এ ছাড়া মর্ডানার প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৪ লাখ ২১ হাজার ৯৫০ জন।