October 7, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, August 31st, 2022, 9:19 pm

সড়কে বৈদ্যুতিক খুঁটি রেখেই ঢালাই কাজ সম্পন্ন

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার:

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল-শমশেরনগর সড়কের কমলগঞ্জ উপজেলার ভানুগাছ বাজার এলাকায় সড়কের ওপর তিনটি বৈদ্যুতিক খুঁটি রেখেই সম্প্রসারণের কাজ চলছে। সড়কের প্রায় এক-তৃতীয়াংশে একটি খুঁটি ও পার্শ্বে আরও দুটি খুঁটি রেখেই আরসিসি ঢালাই এর কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। সড়কের ওপর খুঁটিগুলো থাকায় নিয়মিত ছোট ছোট দুর্ঘটনা ঘটছে। খুঁটিটি চারটি সড়কের সংযোগ স্থানে হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে নিয়মিত পথচারী ও যানবাহন চলাচল করছে। বৈদ্যুতিক খুঁটিগুলো দ্রুত অপসারণের জন্য স্থানীয়রা দাবী জানিয়েছেন।

বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের বিষয়ে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ও মৌলভীবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগ পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ বলছে খুঁটি অপসারণের জন্য মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কাছে চিঠি পাঠিয়েছে যদিও চিঠির বিষয়টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি অস্বীকার করেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, শমশেরনগর-শ্রীমঙ্গল সড়কের ভানুগাছ বাজারের অংশে সড়ক উন্নয়ন কাজের আরসিসি ঢালাই এর কাজ চলছে। সড়কের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় তিনটি বৈদ্যুতিক খুঁটি রেখে একপাশের ঢালাই এর কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। সড়কের এক তৃতীয়াংশে একটি খুঁটি রয়েছে। এই খুঁটির পাশ দিয়ে চারদিকের চারটি সড়কের সংযোগ স্থান রয়েছে। বৈদ্যুতিক খুঁটিটি পথচারী ও যানবাহনের জন্য দুর্ঘটনার ঝুঁকি হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এ ছাড়া বাকি দুটি খুঁটি সড়কের ওপর দাঁড়িয়ে আছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও বিভিন্ন গাড়ির চালকেরা অভিযোগ করে বলেন, ঢালাই এর কাজ শুরু হওয়ার আগে বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জন্য বারবার বলা হয়েছে। কিন্তু কেউ আমাদের কথা শুনেনি। সড়কের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় খুঁটিগুলো থাকার কারণে সবসময় ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটছে। এখান থেকে খুঁটি অপসারণ না করলে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

ভানুগাছ বাজার পৌর বনিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো: সানোয়ার হোসেন বলেন, শুধু জনগুরুত্বপূর্ণ সড়ক নয়, এখান থেকে চারদিকে চারটি রাস্তার সংযোগ রয়েছে। এই সড়কে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ও মৌলভীবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগ কিভাবে সড়কের ওপর তিনটি বৈদ্যুতিক খুঁটি রেখেই আরসিসি ঢালাই এর কাজ সম্পন্ন করলেন তা আমরা জানি না। এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করে। দ্রুত সময়ের মধ্যে সড়কের ওপর থেকে খুঁটি অপসারণ করার দাবি জানান তিনি।

সড়কে খুঁটির বিষয়ে মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কমলগঞ্জ আঞ্চলিক কার্যালয়ের ডিজিএম মীর গোলাম ফারুক বলেন, বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জন্য মৌলভীবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগ আমাদের কাছে লিখিত কোন চিঠি পাঠাননি।

সড়ক থেকে বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জন্য আমাদের কাছে এখন পর্যন্ত লিখিত কোন আবেদন আসেনি। লিখিত আবেদন আসলে বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: জিয়া উদ্দিন বলেন, সড়ক থেকে বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জন্য এখন থেকে প্রায় তিন মাস আগে মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কাছে লিখিত চিঠি পাঠিয়েছি কিন্তু তাঁরা সড়কের ওপর থেকে খুঁটি অপসারণের কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করেননি।