December 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, October 14th, 2022, 8:28 pm

হিলির আড়তগুলোতে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বাড়ছে

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের আড়তগুলোতে কয়েকদিন থেকে আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বাড়তে শুরু করেছে। প্রতিদিনই ২/১ টাকা করে বেড়ে শুক্রবার দুপুরে বিক্রি হয়েছে ৩৮-৪০ টাকা দরে। কেজিপ্রতি দাম বেড়েছে অন্তত ১০-১২ টাকা।

সর্বশেষ গত সোমবার ২৬-২৮ টাকায় বিক্রি হয়েছিল এই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটি।

দীর্ঘদিন ধরে দাম স্থিতিশীল থাকার পর আবারও অস্থির হয়ে উঠছে পেঁয়াজের বাজার। হঠাৎ করে দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছেন পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকারসহ ভোক্তারা।

জানতে চাইলে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারক শহীদুল ইসলাম জানান, ভারতের পেঁয়াজ উৎপাদন এলাকাগুলোতে সাম্প্রতিক বন্যা হওয়ায় আবাদ ব্যাহত হয়েছে। ফলে সেখানে পেঁয়াজের সংকট দেখা দেয়ায় চাহিদা মত পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে না। আবার কেজিতে ৮-১০ টাকা করে ভারতের ব্যবসায়ীরা দাম বাড়িয়েছে।

তিনি আরও জানান, বাংলাদেশে ভারতের পেঁয়াজের প্রচুর চাহিদা। তাই সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে বেশি দাম দিয়ে আমাদের আমদানি করতে হচ্ছে। তবে বন্দর দিয়ে আগের চেয়ে পেঁয়াজের আমদানি কম হচ্ছে। আরও দাম বাড়বে বলে আশঙ্কা এই ব্যবসায়ীর।

আরেক আমদানিকারক রেজাউল ইসলাম জানান, ভারত থেকে আমদানি কম হওয়ায় দেশের বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ করা যাচ্ছে না। ফলে দাম বাড়তে আছে। ভারতে নতুন পেঁয়াজ না উঠা পর্যন্ত দাম আরও বাড়তে পারে। এখন থেকে সরকারকে বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ ও দামের বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে হবে। আমরা গত তিনদিন আগে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৬-২৮ টাকায় বিক্রি করেছি। আজ সেই পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকার কাছে।

বন্দরের আড়তে পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকার আইয়ুব আলী জানান, বন্দরের আড়ত থেকে পেঁয়াজ কিনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাঠাই। প্রতিদিনই দুই-এক টাকা করে দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত তিনদিন থেকে একলাফে ১০-১২ টাকা বেড়েছে। খুব সাবধানে কিনতে হচ্ছে। কারণ দাম বেশি। আবার পচনশীল। লোকসানে পড়া যাবে না।

বন্দরের বেসরকারি অপারেটর পানামা হিলি পোর্টের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. সোহরাব হোসেন মল্লিক জানান, গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত দুর্গাপূজা উপলক্ষে হিলি বন্দর দিয়ে পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ছিল। ৮ অক্টোবর থেকে পুনরায় কার্যক্রম শুরু হওয়ায় ভারত থেকে পেঁয়াজ আসা অব্যাহত রয়েছে। তবে আগের চেয়ে পেঁয়াজের আমদানি কম হচ্ছে।

ভারতে বন্যার কারণে সংকট দেখা দেয়ায় দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এ কারণে আমদানিকারকেরা চাহিদামত পেঁয়াজ আমদানি করতে পারছেন না।

এদিকে হিলি স্থলশুল্ক স্টেশনের তথ্যমতে, গত পাঁচ কার্যদিবসে ভারতীয় ১১৪টি ট্রাকে তিন হাজার ১৩ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে।

—ইউএনবি