May 20, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, April 10th, 2022, 8:14 pm

১২ পয়েন্টেই এগিয়ে রইল রিয়াল

অনলাইন ডেস্ক :

রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণাত্মক ফুটবলের সামনে কোনোরকম প্রতিরোধ গড়তে পারল না গেতাফে। আধিপত্য ধরে রেখে দুই অর্ধে দুটি গোল করল কার্লো আনচেলত্তির দল। অনায়াস জয়ে লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধারের পথে এগিয়ে গেল আরেক ধাপ। সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে শনিবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি ২-০ গোলে জিতেছে স্পেনের সফলতম দলটি। কাসেমিরো দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লুকাস ভাসকেস। মাঝমাঠের দুই সেনানী লুকা মদ্রিচ ও টনি ক্রুসকে বেঞ্চে রেখে স্বাগতিকরা খেলতে নামলেও তাদের শূন্যতা বুঝতে দেননি ফেদে ভালভেরদে, কাসেমিরো, কামাভিঙ্গারা। নিশ্চিত সুযোগ খুব বেশি তৈরি না হলেও গেতাফের সাদামাটা পারফরম্যান্সে জয় নিয়ে কখনোই তেমন ভাবতে হয়নি স্বাগতিকদের। আগের দিন গ্রানাদাকে হারিয়ে রিয়ালের সঙ্গে ব্যবধান কমিয়েছিল সেভিয়া। এই জয়ে আবারও ব্যবধানটা ১২ পয়েন্টে নিয়ে গেল রেকর্ড চ্যাম্পিয়নরা। ৩১ ম্যাচে ২২ জয় ও ৬ ড্রয়ে রিয়ালের পয়েন্ট ৭২। সেভিয়ার পয়েন্ট ৬০। এবারের লিগে যে তিনটি ম্যাচে হেরেছে রিয়াল, তার একটি এই গেতাফের বিপক্ষে। দারুণ ছন্দে থেকে গত বছর শেষ করার পর ২০২২ সালের প্রথম ম্যাচে দলটির মাঠে ১-০ গোলে হেরেছিল আনচেলত্তির দল। সেই ক্ষতে প্রলেপ দেওয়ার ম্যাচের শুরুতেই জালে বল পাঠান দুর্দান্ত ফর্মে থাকা করিম বেনজেমা। কিন্তু তিনি অফসাইডে থাকায় মেলেনি গোল। অষ্টাদশ মিনিটে তার ক্রসে বল ডি-বক্সে ফাঁকায় জোরাল ভলি মারেন ভালভেরদে, ঝাঁপিয়ে কোনোমতে ফেরান গোলরক্ষক। দুই মিনিট পর প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের দুই পায়ের মধ্যে দিয়ে বল বক্সে পাঠিয়ে দারুণ কিছুর সম্ভাবনা জাগান ভিনিসিউস। কিন্তু শেষ পর্যন্ত গোলরক্ষক বরাবর দুর্বল শট নেন তিনি। চাপ ধরে রেখেও ভেস্তে যাচ্ছিল সুযোগ। অবশেষে ৩৮তম মিনিটে অপেক্ষার শেষ হয়। বাঁ দিক থেকে ভিনিসিউসের দারুণ ক্রসে লাফিয়ে বলের নাগাল পাননি বেনজেমা, পেছনে ডাইভিং হেডে বল জালে পাঠান কাসেমিরো। দ্বিতীয়ার্ধেও একইভাবে আধিপত্য ধরে রেখে খেলতে থাকে রিয়াল। তবে খুব ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না তারা। ৬৮তম মিনিটে মিলে যায় ব্যবধান দ্বিগুণ করা গোল। ডান দিক থেকে রদ্রিগোর পাস বক্সে ফাঁকায় পেয়ে জায়গা বানিয়ে কোনাকুনি শটে গোলটি করেন ভাসকেস। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ অনেকটা হাতে চলে আসায় পাঁচ মিনিট পর বেনজেমাকে তুলে নেন কোচ। গত কয়েক বছরে নানা ঘটনায় বারবার সমালোচনায় বিদ্ধ হওয়া গ্যারেথ বেল মাঠে নামেন হাসিমুখে। বল পায়ে অবশ্য উল্লেখযোগ্য কিছু করতে পারেননি ওয়েলস ফরোয়ার্ড। নির্ধারিত সময়ের একেবারে শেষ মিনিটে ব্যবধান কমাতে পারত গেতাফে। কিন্তু এনেস উনালের শট থিবো কোর্তোয়াকে ফাঁকি দিলেও পোস্টে বাধা পায়। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ের আগে এই জয়ে বাড়তি আত্মবিশ্বাস পাবে রিয়াল। ঘরের মাঠেই চেলসির বিপক্ষে কোয়ার্টার-ফাইনালের ফিরতি লেগে মঙ্গলবার মাঠে নামবে বেনজেমারা।