December 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, September 25th, 2022, 6:03 pm

১৩ তম হেনরি ডুনান্ট মেমোরিয়াল মুট কোর্ট প্রতিযোগিতার জাতীয় রাউন্ডের আয়োজন সমাপ্ত

আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটি (আইসিআরসি) ও ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি) যৌথভাবে আন্তর্জাতিক মানবিক আইন (আইএইচএল) বিষয়ক ১৩-তম হেনরি ডুনান্ট মেমোরিয়াল মুট কোর্ট প্রতিযোগিতার জাতীয় রাউন্ডের আয়োজন করেছে। এই প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য হল বন্ধুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আইএইচএলের প্রতি আইনের শিক্ষার্থীদের সচেতনতা ও আগ্রহ বাড়ানো এবং তরুণ আইন শিক্ষার্থীদের অ্যাডভোকেসি দক্ষতা বিকাশে সহায়তা করা। ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ অনুষ্ঠিত এ প্রতিযোগিতায় দেশের ২৭টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৮১ জন আইনের শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছিল, একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানা যায়।

প্রতিযোগীরা তাদের সামনে উপস্থাপিত কেসগুলোকে বুঝে তাদের অ্যাডভোকেসি এবং গবেষণার দক্ষতা ব্যবহার করে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক রাউন্ডে অংশ নেয়। প্রতিযোগী দলগুলো আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রাক-বিচারের পর্যায়ের একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সামনে একটি অনুমানমূলক কেস-স্টাডিতে তাদের আইনী যুক্তি উপস্থাপন করেছে। এ মামলায় প্রাকৃতিক পরিবেশের সুরক্ষা, সশস্ত্র সংঘাতে বেসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষা এবং অন্যান্য আইএইচএল থিম সম্পর্কিত বিষয়গুলি উঠে এসেছে। প্রতিযোগিতার জুরি প্যানেল সংশিষ্ট শিক্ষাবিদ, বিচারক, কর্মকর্তার সমন্বয়ে গঠিত ছিল। এছাড়াও, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের বিচারকরা সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল রাউন্ডের সময় জুরি প্যানেলে উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকার আইইউবি ক্যাম্পাসে আজ অনুষ্ঠিত ফাইনাল রাউন্ডে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিযোগিতার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দল জয়লাভ করে। নিজেদের অর্জন বিষয়ে বলতে গিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয়ী দলের সদস্যরা বলেছেন, “এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। এই ধরনের আয়োজন আইএইচএলের তাৎপর্যকে শক্তিশালী করতে সাহায্য করে। আমরা আশা করি ভবিষ্যতে বাংলাদেশে আইএইচএলের প্রাসঙ্গিক বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখতে পারব।” জাতীয় রাউন্ডের শীর্ষ দুই দল নেপালের কাঠমুন্ডুতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক রাউন্ডে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে।

বিচারপতি ওবায়দুল হাসান তার বক্তব্যে বলেন, ”আইন শিক্ষার্থীদের পেশাগত জ্ঞান সম্পূর্নভাবে উপলব্ধি করতে এ ধরনের মুট কোর্ট প্রতিযোগিতায় সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করতে হবে।” তিনি শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক জ্ঞান বৃদ্ধির জন্য ট্রায়াল কোর্টে গিয়ে মামলা-মোকদ্দমা দেখার ওপরেও জোর দেন।

আইসিআরসি বাংলাদেশের ডেপুটি হেড অব ডেলিগেশন ফ্যাব্রিস এদোয়ার্দ বলেন, “আন্তর্জাতিক মানবিক আইনের মূল চেতনা হল সার্বজনীন মানবিক নীতি যা যুদ্ধের সময়েও মানুষের মর্যাদা রক্ষা করে।” তিনি যোগ করেন, ” উৎসুক তরুণ ছাত্রদের এ প্রতিযোগিতায় স্বতস্ফ‚র্ত অংশগ্রহণ দেখে আমি আনন্দিত। এ ধরনের আয়োজন আইএইচএলের প্রচার ও প্রসারে চমৎকার একটি ফোরাম হিসেবে কাজ করবে।”

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, পেশাগত জীবনে সাফল্য আনার জন্য আইনের স্নাতকদের তাত্ত্বিক ও দার্শনিক ভিত্তির ওপর শক্ত ভিত থাকতে হবে।

আইইউবির উপাচার্য তানভীর হাসান, পিএইচডি বলেন,”আইনের ছাত্র হিসেবে পেশাগত জীবনে যোগদানের আগে আইনের বাস্তবিক প্রয়োগ সম্পর্কে জানার একমাত্র উপায় মুট কোর্ট বা মক ট্রায়াল হতে পারে; এবং আইসিআরসির সাথে যৌথভাবে এ মর্যাদাপূর্ণ প্রতিযোগিতা আয়োজন করতে পেরে আমরা আনন্দিত।”

আইইউবির আইন বিভাগের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডক্টর বোরহান উদ্দিন খান বলেন, “এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের অ্যাডভোকেসি দক্ষতাকে ধারালো করার, দল গঠন শেখা এবং দলীয় কাজের মনোভাবকে আরও উন্নত করতে এবং নতুন নেটওয়ার্ক তৈরি করার সুযোগ পেয়েছে।”

এ সময় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. নিয়াজ আহমেদ খানের পাশাপাশি আইসিআরসির লিগ্যাল এডভাইজাররা উপস্থিত ছিলেন। আইসিআরসি এবং আন্তর্জাতিক রেড ক্রস এবং রেড ক্রিসেন্ট আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা হেনরি ডুনান্টের নামানুসারে এ প্রতিযোগিতাটি ২০০৫ সালে শুরু হওয়ার পর থেকে খ্যাতি এবং মর্যাদায় নিজের স্থান তৈরি করে নিয়েছে।

আইএইচএলের প্রসারে আইসিআরসি তার ম্যান্ডেটের অংশ হিসাবে বাংলাদেশে আইন বিষয়ক পেশাজীবী, আইনের ছাত্র, প্রশিক্ষক, সিদ্ধান্ত ও নীতি-নির্ধারক এবং সশস্ত্র বাহিনী সহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং মুট কোর্ট প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আইনের প্রচার করে।

—-প্রেস বিজ্ঞপ্তি