December 10, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, March 1st, 2022, 7:14 pm

৫ জেলার অবৈধ ইটভাটা ধ্বংসের নির্দেশ

ফাইল ছবি

বায়ু দূষণ নিয়ন্ত্রণে ঢাকাসহ পাঁচ জেলায় থাকা অবৈধ ইটভাটার সব ধরনের স্থাপনাসহ নির্মাণসামগ্রী আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ধ্বংস করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পাঁচ জেলার জেলা প্রশাসক ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের প্রতি এই নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার সম্পূরক এক আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদেশে আদালত আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জ ও গাজীপুর জেলার সকল জেলা প্রশাসক ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ডিজিকে সংশ্লিষ্ট এলাকায় সকল অবৈধ ইটভাটা ধ্বংস ও সেখানে নির্মিত স্থাপনা ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আমাতুল করীম। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাঈনুল হাসান ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল নাসিম ইসলাম।

শুনানিতে আবেদনকারীর পক্ষে সিনিয়র অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ বলেন, অবৈধ ইটভাটা বন্ধে একাধিকবার আদালত নির্দেশ দিলেও জেলা প্রশাসক ও পরিবেশ অধিদপ্তরের প্রতিবেদনে এসেছে যে এখনও শত শত ইটভাটা কার্যক্রম চালাচ্ছে। অথচ ইটভাটা নিয়ন্ত্রণ আইনে কোন সুযোগ নেই লাইসেন্স ছাড়া ইটভাটা স্থাপন করার।

তিনি আরও বলেন, ২০২০ সালের ২৬ নভেম্বর হাইকোর্ট পাঁচ জেলার জেলা প্রশাসকদেল সকল অবৈধ ইটভাটা বন্ধে নির্দেশ দেয়ার পরে ভাটার মালিকরা উক্ত আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করলে আপিল বিভাগ উচ্ছেদের আদেশ বহাল রাখেন।

ঢাকায় বায়ু দূষণ ও অবৈধ ইটভাটা নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে আসা প্রতিবেদন যুক্ত করে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে গত ৩০ জানুয়ারি একটি সম্পূরক আবেদন করা হয়। গত ১ ফেব্রুয়ারি সে আবেদনের শুনানির পর ঢাকার বায়ু দূষণ রোধে উচ্চ আদালতের আগের নির্দেশনা বাস্তবায়নে পদক্ষেপ না থাকায় সংশ্লিষ্ট পাঁচ জেলার (ঢাকা, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর) জেলা প্রশাসক ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে ডাকেন হাইকোর্ট।

—ইউএনবি