November 29, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, November 17th, 2022, 7:51 pm

‘৭০তম জন্মদিনে সম্মাননা জানাতে রেড কার্পেট সংবর্ধনা’

অনলাইন ডেস্ক :

গুরুত্বপূর্ণ অতিথি, বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব কিংবা তারকাদের সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য লাল গালিচা ব্যবহার করা হয়। সংগীতের জীবন্ত কিংবদন্তী রুনা লায়লার জন্মদিনেও তাই করলো চ্যানেল আই কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) শিল্পী রুনা লায়লার জম্মদিন। দিনটি বিশেষভাবে পালন করেছে চ্যানেল আই। এ উপলক্ষে দুপুরে চ্যানেল আইয়ের নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘তারকা কথন’ এ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন এই শিল্পী। ৭০তম জন্মদিনে তাকে সম্মাননা জানাতে রেড কার্পেট সংবর্ধনা দেয়া হয়। পাশাপাশি রুনা লায়লার সাফল্যগাথা ক্যারিয়ার ও তার প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করে একটি গান তৈরি করা হয়। এই গানে কণ্ঠ দেন চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠের মঞ্চ থেকে উঠে আসা চার শিল্পী কোনাল, ঝিলিক, তরিক মৃধা ও মেজবাহ বাপ্পী। রুনা লায়লা জানান, জন্মদিনে আমেরিকা থেকে মেয়ে ও দুই নাতির উইশ নিয়ে জন্মদিন শুরু হয়। এরপর আলমগীর সাহেব, ভাই মুরাদ, আঁখি আলমগীর সবাই ১২টার পরে ফোন করেন। এ ছাড়া অসংখ্য ফোন এবং খুদেবার্তা পাঠাচ্ছেন শুভাকাক্সিক্ষ থেকে শুরু করে ভক্ত অনুরাগীরা। সকলের ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছেন বলে জানান রুনা। ‘তারকা কথন’ অনুষ্ঠানে এসে রুনা লায়লা বলেন, সবাই আমাকে ৭০তম জন্মদিনে চিন্তাভাবনা জানতে চায়। কিন্তু আমি বলছি, কিসের ৭০? এখনও এডাল্ট হইনি। এইটটিন্থ হলে পরে জানাবো। আমি সাধারণ খুবই সাধারণ মানুষ। অনেকেই মনে করে আমি নাক উঁচু টাইপের, কারও সঙ্গে কথা বলে না। তবে হ্যাঁ, আমি রিজার্ভ। সবার সঙ্গে কথা বলা হয়ে ওঠে না। কিন্তু যাদের সঙ্গে মিশি পছন্দ করি তাদেরকে আমি মন প্রাণ দিয়ে ভালোবাসি। ‘তারকা কথন’ অনুষ্ঠানে রুনা লায়লা এসে তার চার অনুজদের উদ্দেশ্যে বলেন, ওদের আমি নিজের বাচ্চা মনে করি। সবসময় ওদের বলি তোমাদের কোনোকিছু জানার থাকলে আমাকে জাস্ট একটা ফোন করো। আমার সবসময় ছোটদের সঙ্গে নতুনদের সঙ্গে কাজ করতে ভালো লাগে। অনন্যা রুমা প্রযোজিত ‘তারকা কথন’ অনুষ্ঠানে রুনা লায়লা তার ব্যক্তিগত জীবন ও ক্যারিয়ারের নানা দিক তুলে ধরেন। শেয়ার করেন জীবনের বিভিন্ন অভিজ্ঞতা। তারকা কথনে রুনা লায়লার অনুষ্ঠানে তার শুভেচ্ছা জানাতে ফোন করেন তার স্বামী নায়ক আলমগীর। বিশেষ সারপ্রাইজ হিসেবে ফোনে যুক্ত হয়ে শুভেচ্ছা জানান সুপারস্টার শাকিব খান। তিনি বলেন, রুনা ম্যাম আমাদের দেশের অহংকার। দেশের বাইরে শুটিংয়ে গেলে সবাই আপনার খোঁজ জানতে চায়। আপনি আমাদের অনুপ্রেরণার নাম। এ সময় রুনা চমকে উঠে বলেন, শাকিব তুমি ফোন করবে আমি সত্যিই চমকে গেছি! তোমাকে ভালোবাসা।