November 27, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Saturday, August 14th, 2021, 1:02 pm

৭ ঘন্টা পর ভৈরব -ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

জেলা প্রতিনিধি :

ভৈরবের রেলওয়ে স্টেশনের আউটার সিগন্যাল এলাকায় ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রাম গামী নাসিরাবাদ এক্সপ্রেস ট্রেন শুক্রবার দুপুর ১২:৩০ মিনিট ভৈরব স্টেশনে প্রবেশের সময় একটি বগির ৪টি চাকা লাইনচ্যূত হয়েছে। এতে ভৈরব – কিশোরগঞ্জ – ময়মনসিংহ রুটে সকাল প্রকার ট্রেন চলাচল ৭ ঘন্টা বন্ধ থাকে। নাসিরাবাদ এক্সপ্রেস ট্রেনের চাকা লাইনচ্যূত হওয়ার পর ভৈরব স্টেশনে আটকে পড়ে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃ বিজয় এক্সপ্রেস। এতে দুর্ভোগে পরে হাজারও যাত্রী। নাসিরাবাদ এক্সপ্রেস ট্রেনের একটি বগির ৪টি চাকা লাইনচ্যূতর পর প্রায় ৭ঘন্টা চেষ্টার করে প্রকৌশলীরা রেল লাইন সচল করতে সক্ষম হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রেল লাইন সচল হলে আটকে পরা আন্ত:নগর বিজয় ট্রেনটি ভৈরব থেকে ময়মনসিংহের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

এদিকে ট্রেন লাইনচ্যূতর ঘটনায় বাংলাদেশ রেলওয়ে (পূর্বাঞ্চল)জোন থেকে,আলাদা দুটি তদন্ত টিম গঠন করা হয়। একটিতে বাংলাদেশ রেলওয়ে (পূর্বাঞ্চল)জোন ঢাকা (এটিও) মো: আমিনুল ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। অন্যদিকে রেল দপ্তর পূর্বাঞ্চল জোনের থেকে (টি আই টি) মো: জসিম উদ্দিন ভূইয়াকে প্রধান করে ৪ সদস্যের আরো একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তদন্ত টিম সদস্যরা সন্ধ্যায় সরজমিনে এসে তদন্তের কাজ শুরু করে। তারা ট্রেনের চালক, স্থানীয় লোকজন ও স্থানীয় রেলওয়ের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলছেন কেন ট্রেন লাইনচ্যূত হল, রেল লাইনের ও সিগন্যাল এর কোন সমস্যা ছিল কিনা অথবা গাফিলতি ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে।

ভৈরব স্টেশন সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর ১২:৩০ মিনিট সময় নাসিরাবাদ ট্রেনটি ভৈরব স্টেশনের প্রবেশের সময় হঠাৎ বিকট শব্দ হয়। ট্রেনে থাকা যাত্রীরা চিৎকার শুরু করলে চালক সাথে সাথে ট্রেনটি থামাতে সক্ষম হয়। দূঘর্টনা কবলিত ট্রেনটিকে উদ্ধার করতে দুপুর ১:৩০ মিনিটে আখাউড়া থেকে একটি উদ্ধারকারী ট্রেন উদ্ধার কাজ শুরু করে। প্রকৌশলীরা প্রায় ৭ঘন্টা চেষ্টার পর রেল লাইন সচল করতে সক্ষম হয়।

লাইনচ্যুত নাসিরাবাদ ট্রেনে থাকা মামুনুর রসিদ নামের এক যাত্রী বলেন ,দেশে লকডাউনের কারণে যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ ছিল, দুই দিন হল রেল চালু হয়েছে। জরুরি কাজে কিশোরগঞ্জ থেকে ফেণী যাচ্ছি, রেল ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেন তিনি।

উল্লেখ্য,প্রায় দেড় বছর আগে একই পয়েন্টে ঈশাখাঁ এক্সপ্রেস ট্রেন সহ বেশ কয়েকটি ট্রেনের বগির লাইনচ্যুত ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার জানান, দূঘর্টনা হওয়ার পর পরই উদ্ধারকারী ট্রেন এসে উদ্ধার কাজ চালায়। সন্ধা সাড়ে ৭ টার দিকে দূর্ঘর্টনা কবলিত ট্রেনটিকে উদ্ধার করে ভৈরব ময়মনসিংহ রেলপথে ট্রেন চলাচল পুনরায় শুরু হয়।

এ বিষয়ে রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলীয় (আখাউড়া) সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান জানান, নাসিরাবাদ ট্রেন ছিল একটি যাত্রীবাহী ট্রেন কি কারণে ট্রেনটি লাইনচ্যূত হয়েছে তা আমরা ুখতিয়ে দেখছি। দূঘর্টনাটি রেললাইন অথবা ট্রেনের চাকায় কোন ত্রুটি ছিল কি না আমরা যাচাই করছি।