June 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, May 17th, 2023, 8:12 pm

৮ লাখ ৭৫ হাজার আফগান শিশু অপুষ্টির শিকার

অনলাইন ডেস্ক :

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের একটি সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আফগানিস্তান বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ মানবিক বিপর্যয়গুলোর মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। দেশটির জনসংখ্যার দুই-তৃতীয়াংশ খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এইচআরডব্লিউ রিপোর্টে বলা হয়েছে, আফগানিস্তান বিশ্ব মিডিয়ার নজর এড়িয়ে গেলেও, বর্তমানে দেশটি বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ মানবিক বিপর্যয়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এনজিওতে আফগান নারীদের কাজ নিষিদ্ধ করার পর সংকট আরও তীব্র হয়েছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, আফগানিস্তানে ৮ লাখ ৭৫ হাজার শিশু তীব্র অপুষ্টির শিকার হচ্ছে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে, দেশটির জনসংখ্যার দুই-তৃতীয়াংশ খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। যার মধ্যে বর্তমানে ৮ লাখ ৭৫ হাজার শিশু তীব্র অপুষ্টির সম্মুখীন। যার ফলে নারী ও মেয়েরা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে। জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক বলেছেন, “আমার কাছে যে অতিরিক্ত তথ্য রয়েছে তা হল আফগানিস্তানে মানবিক পরিস্থিতি এখনও সংকটজনক এবং আমাদের অপারেশনগুলোর অর্থায়নও প্রায় শেষ।” এর আগে বিশ্বব্যাংক তাদের প্রতিবেদনে বলেছিল, আফগানিস্তান সেই সাতটি দেশের মধ্যে একটি যারা খাদ্য সংকটের জন্য বিপর্যয়কর অবস্থায় রয়েছে।

খাদ্য সংকটে আক্রান্ত সাতটি দেশের মধ্যে রয়েছে আফগানিস্তান, বুরকিনা ফাসো, হাইতি, নাইজেরিয়া, সোমালিয়া, দক্ষিণ সুদান এবং ইয়েমেন। ২০১৭ সালে গ্লোবাল রিপোর্ট অন ফুড ক্রাইসিস ডেটা রিপোর্ট করা শুরু করার পর থেকে এই দেশগুলোতে খাদ্য সংকটের সম্মুখীন মানুষের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এদিকে ইউনিসেফও সতর্ক করে বলেছে, আফগানিস্তানে ব্যাপক মানবিক সংকটের মধ্যে সাহায্যের অভাব গুরুতর খাদ্য সংকট সৃষ্টি করছে। ইউনাইটেড নেশনস চিলড্রেন’স ফান্ড (ইউনিসেফ) এর পুষ্টি প্রধান মেলানি গ্যালভিন টুইটারে একটি ভিডিও বার্তায় বলেছেন,”শুধুমাত্র এই বছরের মধ্যেই আফগানিস্তানে মারাত্মক অপুষ্টির কারণে হাজার হাজার দুর্বল শিশু মারা যেতে পারে।”

গ্যালভিন আরও বলেছেন, আফগানিস্তানে অপুষ্টির চিকিৎসা এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় সরবরাহ কিনতে ২১ মিলিয়ন ডলার জরুরি তহবিলের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে। বছরের পর বছর ধরে চলা সংঘাত, দারিদ্র্য এবং ভাঙ্গা ও দান-ভিত্তিক অর্থনীতি সাধারণ মানুষকে তীব্র ক্ষুধা ও খাদ্য সংকটে ভুগতে বাধ্য করেছে। ইউনিসেফ তার প্রতিবেদনে তুলে ধরেছে, আফগানিস্তান বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ মানবিক সংকটপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে একটি। চলতি বছর ১৫ মিলিয়নেরও বেশি শিশুসহ ২৮ মিলিয়নের বেশি লোকের মানবিক সুরক্ষা এবং সহায়তার প্রয়োজন, যা সংখ্যায় ২০২২ সালের তুলনায় ৪ মিলিয়ন বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০২১ সালে আফগানিস্তানে তালেবানরা ক্ষমতায় ফিরে আসার পর থেকে, অর্থনীতি পুনরুদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়েছে, যা লক্ষ লক্ষ মানুষকে অনাহারের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়াতে বাধ্য করেছ।