August 18, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, July 14th, 2022, 7:46 pm

এবার নিউইয়র্কে তানভীর শাহিনের একক অনুষ্ঠান

অনলাইন ডেস্ক :

দীর্ঘদিন পর নিউইয়র্কে কণ্ঠশিল্পী তানভীর শাহিন একক সঙ্গীতানুষ্ঠান হতে যাচ্ছে। দীর্ঘ ৩৫ বছরের মিউজিক ক্যারিয়ারে দেশ বিদেশে অগণিত স্টেজ শো যেমন করেছেন এই কণ্ঠশিল্পী, তেমনি জনপ্রিয় গানের সংখ্যাও কম নয়। তবে দীর্ঘ এই ক্যারিয়ারে আমেরিকায় একক কনসার্ট করছেন খুবই কম। নিজের প্রচার নিয়ে কোনোদিনই মাথা ঘামাননি। নিবিষ্ট হয়ে গান করে গেছেন এই শিল্পী। তানভীর শাহিন বলেন, ‘দেশ ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছি প্রায় ৩০ বছর। এর মাঝে নিয়মিত দেশে গিয়ে নিজের অ্যালবাম করেছি। দেশে শো করেছি। আমেরিকা ও আমেরিকার বাইরে একাধিক দেশে স্টেজ শো করেছি। কিন্তু নিজের একটি একক সঙ্গীতানুষ্ঠান এভাবে কখনও করা হয়নি।’ তানভীর শাহিনের এই কনসার্টটির আয়োজক পিজি প্রডাকশন হাউজ। আগামী ১৬ জুলাই নিউইয়র্কের হিন্দু টেম্পল সোসাইটি অডিটরিয়ামে এই কনসার্টটি অনুষ্ঠিত হবে। উল্লেখ্য, তানভীর শাহিন নব্বই দশকের শুরু থেকেই ঢাকায় মিউজিক করেন। কিংবদন্তী সঙ্গীতজ্ঞ লাকী আখন্দ ও আলাউদ্দিন আলীর ঘনিষ্ঠ ছিলেন তানভীর শাহিন। এই দুই বরেণ্য’র সুর ও সঙ্গীতে একাধিক গান করেছেন শিল্পী তানভীর শাহিন। তানভীর শাহিন বলেন,‘লাকী আখন্দ’র সাথে আমার দীর্ঘকালের স্মৃতি। আমার সৌভাগ্য যে আমি তার সাহচার্য পেয়েছি। আমাকে তার সুরে গান বেঁধে দিয়েছেন। শুধু তাই নয় তার কয়েকটি গান আমি রিমেক করে গাইবার অনুমতিও দিয়েছিলেন তিনি। আমার সর্বশেষ একক ‘গানের ফেরিওয়ালা’ অ্যালবামটিতে লাকী আখন্দ’র সেই গানগুলো রয়েছে। এ ছাড়া আলাউদ্দিন আলী’কে আমি বাবা বলে সম্বোধন করতাম। তিনিও আমাকে পুত্রের স্নেহে আগলে রাখতেন। তার সুরে গান গেয়েছি, আড্ডা দিয়েছি। এক বৈঠকে গান করার সুযোগ পেয়েছি। তিনি বিভিন্ন সময় আমাকে আমার গানের ব্যাপারে অনুপ্রেরণা দিয়েছেন, যা আমার জন্য পরমভাগ্য। ইচ্ছে আছে ১৬ জুলাইয়ের কনসার্টে আমার প্রিয় এই বরেণ্য মানুষদের স্মরণ করে গান গাইবার।’ শুধু লাকী আখন্দ, আলাউদ্দিন আলীই নয়, তানভীর শাহিন সান্নিধ্য ও সাহচার্য পেয়েছেন আরো একাধিক বরেণ্য সঙ্গীতজ্ঞ। তাদের প্রত্যেকের স্মরণেই গান গাইবার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এই তালিকায় রয়েছেন কিংবদন্তী মান্না দে ও শাহনাজ রহমত উল্লাহর মতো ব্যক্তিত্বও রয়েছেন। শিল্পী মান্না দে নিউইয়র্কে তানভীর শাহিনের নিজস্ব স্টুডিও ‘থ্রি এম’ এ এসেছিলেন। তানভীর শাহিনের আয়োজনে একটি কনসার্টে গান গেয়ে তানভীরের কণ্ঠে মুগ্ধ হয়ে মান্না দে সিগনেচারকৃত একটি হারমোনিয়াম উপহার দেন তানভীরকে। তানভীরের মতে,‘আমার জীবনের অন্যতম শ্রেষ্ঠ উপহার এটি। এত এত বরেণ্য মানুষের ভালবাসা আর সাহচার্য পেয়েছি। জীবনে এটাই আমার বড় প্রাপ্তি, বড় অর্জন। আয়োজক হিসেবেও গানপ্রেমী তানভীর শাহিনই স্বরূপে কাজ করেছেন। গুণী শিল্পী, ব্যান্ড তারকাদের নিয়ে কনসার্টের আয়োজন করেছেন। কোনোরকম মানহীন, বা বিতর্কিত কোনো শো তিনি করেননি। আর শিল্পী হিসেবে বলিউড অ্যওয়ার্ড শো, জ্যামাইকান কমিউনিটি, সাউথ আফ্রিকান কমিউনিটি থেকে শুরু করে আমেরিকার বিভিন্ন স্টেটের একাধিক সমৃদ্ধ আয়োজনগুলোতে পারফর্ম করেছেন। ১৬ জুলাইয়ের এই একক অনুষ্ঠানটির করছেন যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় মিউজিক দল ‘মাটি ব্যান্ড’।