May 26, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, April 20th, 2023, 8:26 pm

অশালীন আচরণের কারণে বিপাকে রোনালদো

অনলাইন ডেস্ক :

সৌদি প্রো লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী আল-হিলাল এফসির কাছে হেরেছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দল আল-নাসর। মঙ্গলবার রাতে কিং ফাহাদ ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ২-০ গোলে জয় পেয়েছে আল-হিলাল। ম্যাচে মেজাজ হারিয়ে হলুদ কার্ড দেখেছেন রোনালদো। ম্যাচ শেষে করেছেন অশোভন আচরণও। ম্যাচের ৫৭তম মিনিটের খেলা চলছিল, আল-নাসর তখন ১-০ গোলে পিছিয়ে। আল-হিলালের এক ফুটবলারের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন রোনালদো। গলায় দুই হাত দিয়ে জাপটে ধরে তাকে ফেলে দেন সিআরসেভেন। এ ঘটনায় হলুদ কার্ড দেখতে হয়েছে রোনালদোকে। এমন গুরুতর ফাউলের জন্য হলুদ কার্ডই যথেষ্ট কি না, তা নিয়েও চলছে আলোচনা।

আল-হিলাল তো প্রশ্নই তুলেছে, রোনালদো মাঠে ফুটবল খেলতে নেমেছিলেন নাকি ‘রেসলিং’। নিজেদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে ওই ফাউলের ভিডিও আপলোড করেছে আল-হিলাল। ক্যাপশনে লিখেছে, ‘ডাব্লিউডাব্লিউই’। ম্যাচের পর রোনালদো যখন ড্রেসিংরুমে ফিরছিলেন, তখন গ্যালারিতে দর্শকরা ‘মেসি, মেসি’ বলে স্লোগান দিতে থাকে। তখনই গ্যালারির উদ্দেশে অশোভন ভঙ্গি করেন রোনালদো। যেটিকে সৌদি ফুটবল দর্শকরা তাদের নীতি অনুযায়ী অপরাধ হিসেবে দেখছেন। রোনালদোর এই আচরণ সৌদি টেলিভিশনে প্রচারিত সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রীড়াবিষয়ক অনুষ্ঠান ‘অ্যাকশন ইয়া দাওরি’তে দেখানো হয়েছে অনেকক্ষণ ধরে। তবে আল-নাসর কর্তৃপক্ষ রোনালদোর আচরণের একটি ব্যাখ্যা দিয়েছে।

ক্লাবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘রোনালদোর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে, সেটি সত্য নয়। তিনি যা করেছেন, সেটি কোনোভাবেই ইচ্ছাকৃত কিছু নয়।’ সৌদি আরবের একজন আইনজীবী নউফ বিন আহমেদ টুইটারে লিখেছেন, ‘আমি রোনালদোর এই আচরণকে প্রকাশ্যে সাধারণ মানুষের সঙ্গে অশালীন আচরণের অপরাধ হিসেবে দেখছি। তিনি এই আচরণের মধ্য দিয়ে মানুষকে অসম্মান করেছেন। এটি এমন একটি অপরাধ, যার কারণে একজন গ্রেপ্তার হতে পারেন।

কোনো বিদেশি নাগরিক যদি এমনটা করে থাকেন, তাহলে তাকে দেশে ফেরত পাঠানো যেতে পারে।’ রোনালদোর এমন আচরণ সৌদি আরবের ফুটবলে রীতিমতো ঝড় বইয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে মুসলিমদের পবিত্র মাস রমজানে তার এমন অশালীন আচরণ রক্ষণশীল সৌদি আরবের অনেকে মানতে পারছেন না। তাকে দেশটি থেকে বের করে দেওয়ারও দাবিও তুলছেন অনেকে। এমনকি দেশটির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘সমর্থকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারকারীকে বের করে দাও’ স্লোগান এখন ট্রেন্ডিং।