December 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, November 13th, 2022, 8:09 pm

আফগানিস্তানে আবারও শুরু হচ্ছে মেয়েদের ক্রিকেট

অনলাইন ডেস্ক :

তালেবানরা আফগানিস্তানের ক্ষমতায় আসার সাথে সাথে মেয়েদের ওপর নেমে আসে নানারকম নিষেধাজ্ঞার খড়গ। যেন মেয়েদের আটকে রাখলেই সব ঠিক হয়ে যাবে। বন্ধ হয়ে যায় মেয়েদের ক্রিকেট। এবার আইসিসির পক্ষ থেকে জানানো হলো, তলেবান অধ্যুষিত দেশটিতে আবারও মেয়েদের ক্রিকেট শুরু হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। রশিদ খানদের বোর্ড রাজি হয়েছে মেয়েদের ক্রিকেটকে ফিরিয়ে আনতে। মেয়েদের ক্রিকেট বন্ধ করায় আফগানিস্তানকে আইসিসির সদস্য পদ থেকে বাদ দেওয়া হবে কি না সেই নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছিল। কারণ আইসিসির সদস্য থাকতে নারী ক্রিকেট বাধ্যতামূলক। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, আফগান সরকারের প্রতিনিধি এবং আইসিসির কার্যকরী কমিটি দোহাতে একটি সভায় মিলিত হয়েছিল। সেখানে আফগান সরকারের প্রতিনিধি সেখানে জানিয়েছে যে, আইসিসির সকল নিয়ম মেনে নিতে তারা রাজি। আইসিসির কার্যকরী কমিটিতে আছেন ইমরান খাজা, রস ম্যাককলাম, রামিজ রাজা এবং লসন নাইডু। বিষয়টি নিয়ে কমিটির প্রধান ইমরান খাজা বলেন, ‘খুব ইতিবাচক সভা হয়েছে। সরকার জানিয়েছে যে, আইসিসির নিয়ম মেনে মেয়েদের ক্রিকেট শুরু করা হবে আফগানিস্তানে। শুরুতে কিছু সমস্যা হয়তো হবে। কিন্তু বোর্ডের সঙ্গে সব রকম সহযোগিতা করা হবে। কার্যকরী কমিটি লক্ষ্য রাখবে যে সরকার নিজের কথা রাখছে কি না। সেটা আইসিসিকে জানানো হবে। ‘২০১০ সালে আফগানিস্তানে নারী ক্রিকেট শুরু হয়েছিল। ২০১১ সালে তাদের একটি নারী ক্রিকেট টুর্নামেন্টে খেলার কথা ছিল। সেই বছর কাতারে আয়োজন করা হয়েছিল এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)-এর নারী টি-টোয়েন্টি। কিন্তু সেই টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার কয়েক দিন আগে নিজেদের সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছিল আফগানদের নারী দল। কারণ দেশের একাংশে তাদের ক্রিকেট খেলা নিয়ে প্রতিবাদ শুরু হয়েছিল। এরপর ২০১৪ সালে নারী দলকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছিল। তবে সব বাধা ছাপিয়ে গত বছরের এপ্রিল মাসে রশিদের দেশের নারী দলকে টেস্ট ও এক দিনের ম্যাচ খেলার স্বীকৃতি দেয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। কিন্তু দেশটিতে আরও একবার তালেবান শাসন শুরু হলে আবার বন্ধ হয়ে যায় নারী ক্রিকেট। বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ২৫ জন নারী ক্রিকেটারের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। আইসিসির অন্যতম সদস্য আফগানিস্তান। দেশটির পুরুষ দল ২০২১ এবং ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলেছে। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপও খেলেছে।