December 5, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, November 11th, 2021, 7:53 pm

ইউপি নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে সহিংসতায় নিহত ৬

বিক্ষিপ্ত সহিংসতা ও নানা অনিয়মের অভিযোগের মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের ভোট শেষ হয়েছে। সারাদেশে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষে কমপক্ষে ছয়জন নিহত এবং ১০০ জনেরও বেশি আহত হয়েছে।

নরসিংদী, কক্সবাজার, কুমিল্লা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার খবর পাওয়া গেছে।

ইউএনবির নরসিংদী প্রতিনিধির পাঠানো খবরে জানা যায়, ভোট শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগেই নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার বাশগাড়ী ইউনিয়নে দুই পক্ষের সংঘর্ষে তিনজন নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে।

নিহতরা হলেন- হেকিম মিয়ার ছেলে সালাউদ্দিন (৩০), আব্দুল হক মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর (২৬) ও উপজেলার বাশগাড়ী গ্রামের হাজী সিরাজের ছেলে দুলালা (৪৫)।

নিহতরা বাশগাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আশরাফুল ইসলামের সমর্থক।

সহকারী পুলিশ সুপার (রায়পুরা সার্কেল) সত্যজিৎ কুমার ঘোষ জানান,নির্বাচন শুরুর দুই ঘণ্টা আগে সকাল ৬টার দিকে বাশগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সের সামনে আশরাফুল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রাতুল হাসান জাকিরের সমর্থকরা একে অপরের ওপর হামলা চালায়।

তিনি আরও বলেন,দুই পক্ষ একে অপরের দিকে গুলি ছোঁড়ে এবং একে অপরের উপর টেটা (এক ধরনের মাছের বর্শা) নিয়ে আক্রমণ করে। এসময় তিনজন নিহত হয় এবং আরও ৩০ জন আহত হয়।

আহতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কক্সবাজার প্রতিনিধি জানায়, সদর উপজেলার খুরুশকুলে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন গুলিবিদ্ধ ও ছয়জন আহত হয়েছেন।

নিহত আক্তারুজ্জামান পুটু (৩৫) খুরুশকুল ১ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী শেখ কামালের ছোট ভাই।

র‌্যাব-১৫-এর ক্রাইম প্রিভেনশন স্পেশালাইজড কোম্পানির (সিসিপিএস) কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান বলেন,খুরুশকুল তেতোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটের সময় প্রার্থী বাবুলের সমর্থকরা ব্যালট ছিনতাইয়ের চেষ্টা করছিল। এসময় আরেক প্রার্থী আক্তারুজ্জামানের সমর্থকরা তাদের বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়।

কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, কুমিল্লায় দুপুর ১২টার দিকে মেঘনা উপজেলার মানিকর ইউনিয়নের আমিরাবাদ প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসেন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হারুন অর রশিদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ২১ জন আহত হয়েছে।

পরে আহতদের মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক শাওন মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি জানান, চট্টগ্রামে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ফটিকছড়ির লেলাং ইউনিয়নে এক ব্যবসায়ী নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম জানান,ভোটের সময় গোপালঘাটা আনন্দবাজার এলাকায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে মো. শফি নিহত হন।

বৃহস্পতিবার সকালে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আধা ঘণ্টার বেশি যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক সুমন বনিক বলেন,দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের ভোট শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে ভোর  পাঁচটার দিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নে মাহবুব ও ফোরকান নামের দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

ওসি আরও বলেন,‘দুজনই ঘোড়ামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র দখলের চেষ্টা করে,যার ফলে সংঘর্ষ হয়’।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই প্রার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে। এছাড়া পুলিশ ভোট কেন্দ্রের বাইরে থেকে বাঁশের লাঠি এবং ১০টি পেট্রোল বোমা জব্দ করার কথা জানায়।
বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দেশের ৮৪৮টি ইউপির ৮৩৫টিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়।
ইতোমধ্যে ৮১ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া পাঁচটি ইউপিতে চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে এবং সংরক্ষিত আসনের জন্য সকল প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

যদিও নির্বাচন কমিশন এর আগে ৮৪৮টি ইউপির জন্য দ্বিতীয় ধাপের ভোটের তফসিল ঘোষণা করেছিল।পরবর্তীতে এটি সাতটি ইউপিতে নির্বাচন স্থগিত করেছে এবং একটিতে ভোটগ্রহণ বাতিল করেছে।

চেয়ারম্যান পদের জন্য তিন হাজার ৩১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বীসহ ৪১ হাজারেরও বেশি প্রার্থী দেশব্যাপী দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সদস্য পদের জন্য প্রায় ২৮ হাজার ৭৪৭ জন প্রার্থী এবং সংরক্ষিত আসনের জন্য ৯ হাজার ১৬১ জন নারী প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর মধ্যে ২০৩ জন প্রার্থী এবং সংরক্ষিত আসনে ৭৩ জন নারী প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

এই ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে আট হাজার ৪৯২টি ভোটকেন্দ্রের অধীনে প্রায় ১৬ দশমিক ৬ মিলিয়ন ভোটার রয়েছে। যার মধ্যে ৮৪ লাখ পাঁচ হাজার ৮৩১ জন পুরুষ এবং ৮১ লাখ ৮৯ হাজার ৩৭৯ জন নারী ও ১৬ জন হিজড়া রয়েছে৷

—-ইউএনবি