November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, October 13th, 2022, 7:41 pm

এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারত

অনলাইন ডেস্ক :

শক্তি-সামর্থ্যে দুই দলের পার্থক্য অনেক। মাঠের খেলায়ও পড়ল তার প্রতিফলন। শেফালি ভার্মার বিধ্বংসী ইনিংস ও বাকিদের কিছুকিছু অবদানে ভারত গড়ল দেড়শর কাছাকাছি পুঁজি। পরে থাইল্যান্ডকে একশর আগে গুঁড়িয়ে নারী এশিয়া কাপের ফাইনালে আবারও জায়গা করে নিল ভারত। সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার প্রথম সেমি-ফাইনালে ভারতের জয় ৭৪ রানে। ১৪৮ রানের পুঁজি গড়ে প্রথমবার শেষ চারে খেলতে আসা থাইল্যান্ডকে তারা গুটিয়ে দেয় ¯্রফে ৭৪ রানে। মেয়েদের এশিয়া কাপের আট আসরের সবকটিতে ফাইনাল খেলতে যাচ্ছে ভারত। গত আসরে রানার্স আপ হয় তারা। ৩ উইকেটে হারে বাংলাদেশের বিপক্ষে। বাকি ছয় আসরেরই চ্যাম্পিয়ন ভারত। ভারতের এই জয়ে ব্যাটে-বলে অবদান রেখে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন শেফালি। ১ ছক্কা ও ৫ চারে ২৮ বলে ৪২ রান করেন এই ওপেনার। পরে ২ ওভার বল করে ৯ রানে নেন ১ উইকেট। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ভারতকে ভালো শুরু এনে দেন শেফালি। নাত্তায়া বুচাথাম ও চানিদা সুথিরুয়াংকে টানা দুটি করে চার মারেন তিনি। স্মৃতি মান্ধানাকে (৩ চারে ১৩) হারিয়ে পাওয়ার প্লেতে ৪৭ রান তোলে ভারত। নবম ওভারে থাইল্যান্ড অধিনায়ক চাইওয়াইয়ের দারুণ ক্যাচে বিদায় নেন শেফালিও। এরপর জেমিমা রদ্রিগেজ ও অধিনায়ক হারমানপ্রিত কৌরের ব্যাটে এগোয় ভারতের ইনিংস। ৩ চারে ২৭ রান করেন জেমিমা। হারমানপ্রিত ৪ চারে ৩০ বলে ৩৬ রানের ইনিংস খেলেন। শেষ দিকে ১ ছক্কায় ১৩ বলে ১৭ রান করে অপরাজিত থাকেন পুজা ভাস্ত্রাকার। থাইল্যান্ডের হয়ে দারুণ বোলিংয়ে ২৪ রানে ৩ উইকেট নেন সোরনারিন তিপোচ। রান তাড়ায় তৃতীয় ওভারেই উইকেট হারায় থাইল্যান্ড। তাদের ব্যাটারদের সাজঘরে ফেরার সেই দৃশ্য দেখা যায় নিয়মিত। দলটির হয়ে দুই অঙ্কে যেতে পারেন কেবল দুই ব্যাটার। ২১ রানে ৪ উইকেট হারানো থাইল্যান্ডকে কিছুক্ষণ টানেন চাইওয়াই ও বুচাথাম। তাদের ৪২ রানের জুটিতে পঞ্চাশ পার হয় দলটির রান। দুই ব্যাটারই করেন ২১ করে রান, যা ইনিংসে সর্বোচ্চ। ভারতের হয়ে ৪ ওভারে এক মেডেন ও ৭ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৩ শিকার ধরেন দীপ্তি শর্মা। রাজেশ্বরি গায়কোয়াড় নেন ১০ রান দিয়ে দুটি। আগামীকাল শনিবার মাঠে গড়াবে ফাইনাল। পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা ম্যাচে বিজয়ী দল ভারতের সঙ্গে নামবে শিরোপার লড়াইয়ে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ভারত নারী দল: ২০ ওভারে ১৪৮/৬ (শেফালি ৪২, স্মৃতি ১৩, জেমিমা ২৭, হারমানপ্রিত ৩৬, রিচা ২, পুজা ১৭*, দীপ্তি ৩; বুচাথাম ৪-০-৩১-১, সুথিরুয়াং ২-০-১৫-০, মায়া ১-০-১২-১, পুথাওং ৪-০-২৪-১, কামচোমফু ৪-০-২৩-০, তিপোচ ৪-০-২৪-৩, বুনসুখাম ১-০-১৬-০)
থাইল্যান্ড নারী দল: ২০ ওভারে ৭৪/৯ (কোনচারোয়েনবাই ৫, চানথাম ৪, চাইওয়াই ২১, তিপোচ ৫, সুথিরুয়াং ১, বুচাথাম ২১, কানোহ ৫, পুথাওং ০*, মায়া ০, কামচোমফু ২, বুনসুখাম০*; দীপ্তি ৪-১-৭-৩, রাজেশ্বরি ৪-০-১-২, রিংকু ২-০-৬-১, স্নেহ ৪-০-১৬-১, রাধা ৪-০-২৩-০, শেফালি ২-০-৯-১)
ফল: ভারত নারী দল ৭৪ রানে জয়ী
প্লেয়ার অব দা ম্যাচ: শেফালি ভার্মা