January 24, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, December 27th, 2021, 7:45 pm

গেমসে পদক সংখ্যা বাড়াতে চান বিওএ সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) নতুন সভাপতি হয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। সোমবার দুপুরে নবনির্বাচিত নির্বাহী কমিটির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎও করেছেন সভাপতি। তারপর বিওএ ভবনে আয়োজিত সভা শেষে তিনি সংবাদমাধ্যমের কাছে বিভিন্ন গেমসে যেন পদক সংখ্যা বাড়ে; সেদিকে দৃষ্টি দেওয়ার কথা বলেছেন। বিওএ মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা, সহ-সভাপতি কাজী নাবিল আহেমদসহ সতীর্থদের পাশে রেখে সেনাপ্রধান বলেছেন, ‘স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর শুভক্ষণে এই দায়িত্ব পাওয়া খুবই সৌভাগ্যের বিষয়। আর এইজন্য নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। আমার ওপর আস্থা রাখার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এই আস্থার প্রতিদান দেওয়ার চেষ্টা করবো।’ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনে কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে সবার সঙ্গে পরিচিত হয়েছেন বিওএ সভাপতি। এখন সবার দক্ষতা কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য এই কর্মকর্তার, ‘যেই কমিটি আমরা গঠন করেছি, সবাই যার যার জায়গায় একজন করে বিশেষজ্ঞ। তাদের সমন্বিত দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে একটি সাধারণ লক্ষ্য রেখেছি। যা আগের চেয়ে ভালো করার তাগিদ। ইনশাআল্লাহ আপনাদের সবার সহযোগিতা পেলে আগের চেয়ে ভালো করতে পারবো। আমাদের উদ্দেশ্য থাকবে যে দৃশ্যমান কিছু দেওয়া। এই কমিটি আগের চেয়ে ভালো করেছে, তাই বিভিন্ন ক্রীড়া ক্ষেত্রে ভালো ফল এসেছে।’ দেশের খেলাধুলাতে যেখানে সম্ভাবনা আছে, সেখানে বেশি জোর দেওয়ার কথা বললেন বিওএ সভাপতি। তার মতে, ‘আমাদের যেসব সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র আছে, সেসব জায়গায় বেশি করে বিনিয়োগ করবো। বিভিন্ন গেমসে লক্ষ্য রাখছি যেন পদকের সংখ্যা বাড়াতে পারি। এটাই হবে আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য অর্জন। অন্যথায় আপনি কাজ কেমন করেছেন, তা বিচার করতে পারবেন না। আমরা ফোকাস করছি কোন কোন জায়গায় পদক বাড়ানো যায়।’ শিগগিরই নির্বাহী কমিটির সভা হবে। সেখানে অ্যাকশন প্ল্যান দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। অলিম্পিক ভিলেজ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সভাপতি বলেছেন, ‘ফিজিক্যাল একটি প্রজেক্ট হয়ে থাকলে তা হবে। আমি এটুকু বলতে পারি, প্রথম বিভাগ ফুটবল ও ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতা আমার রয়েছে। আমি ক্যাডেট কলেজ থেকে শুরু করে অনেক খেলাধুলা করেছি। আমি ক্রীড়াপাগল মানুষ। সবসময় ফোকাস থাকবে, আমি আমার সেরাটা দিতে চেষ্টা করবো।’ সেনাপ্রধান সেনাবাহিনী ফুটবল দলে খেলেছেন। এ ছাড়া খুলনাতে প্রথম বিভাগ ফুটবল ও ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতাও আছে। তাই এসব খেলায় সুবিধা বাড়ানোর লক্ষ্যের কথাও জানান সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, ‘আমি ও শাহেদ (বিওএ মহাসচিব) ভাই দীর্ঘক্ষণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছি। তিনি ক্রীড়াকে খুবই ভালোবাসেন। তাই আমি গ্যারান্টি দিতে পারি। উনি স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে বলেছেন, কি কি লাগবে, সেগুলো আমাদের দেবেন। যেহেতু প্রধানমন্ত্রীর আশীর্বাদ আছে, আমাদের ইচ্ছাও আছে। ইনশাআল্লাহ কিছু করতে পারবো বলে আমাদের বিশ্বাস রয়েছে।’ এ সময় গুণীদের কদর করার কথাও উচ্চারিত হয়েছে তার কণ্ঠে, ‘ওল্ড হিরোদের আমরা সবসময়ই শ্রদ্ধা করি। যারা আমাদের জন্য বিশেষ কিছু করে গেছেন, তাদের কেন মনে করবো না। তাদের কৃতকর্মের ওপর ভিত্তি করেই তো আজকের আমরা। আমাদের জন্য যদি শহীদরা আত্মাহুতি না দিতেন, আজকে এই দেশ স্বাধীন হতো না। তাই আমার তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।’ অলিম্পিকে পদকের স্বপ্ন আছে কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে সভাপতি বলেছেন, ‘আমি অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি। স্বভাবতই আমি অলিম্পিক নিয়েই ভাববো। সেটা না ভেবে আমার কোনও উপায় নেই। অবশ্যই ভাবতে হবে। লক্ষ্য থাকতে হবে অনেক দূর। অলিম্পিকে ভালো করার জন্য সাফ গেমস ও এশিয়ান গেমসে ভালো করতে হবে।’