January 29, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, January 9th, 2023, 7:23 pm

বৈদ্যুতিক ও যান্ত্রিক সিস্টেমের ওপর চলে মেট্রোরেল, বাস্তবায়নে এল অ্যান্ড টি

রাজধানীর উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশে অত্যাধুনিক বৈদ্যুতিক ও যান্ত্রিক(ই অ্যান্ড এম) মেট্রোরেলের বাণিজ্যিক কার্যক্রম সফলভাবে শুরু হয়েছে। এটি ঢাকা মেট্রোরেলের লাইন-৬। সিস্টেমটি বাস্তবায়ন করেছে রেলওয়ে পরিবহন অবকাঠামো ব্যবসায়ী লারসেন অ্যান্ড টুব্রো কন্সট্রাকশন।

মেট্রো জগতে, সামগ্রিক সিস্টেম ইন্টিগ্রেশনসহ ইন্টিগ্রেটেড ইএন্ডএম সিস্টেমের কাজগুলো সফলভাবে সম্পন্ন করেছে ভারতীয় বহুজাতিক সংস্থা, লারসেন অ্যান্ড টুব্রো যা এল অ্যান্ড টি নামে পরিচিত।

এই মাইলফলক অর্জনের পর ঢাকা মেট্রো লাইন-৬ এর ফেজ-১ (১১ দশমিক চার কি.মি.) এর বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৮ ডিসেম্বর এটির উদ্বো্ধন করেন।

জাপানিজ ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এর অর্থায়নে ২০ কিমি এমআরটিএস (ম্যাস র‍্যাপিড ট্রানজিট সিস্টেম) লাইন-৬ বাংলাদেশের প্রথম মেট্রোরেল ব্যবস্থা যা ঢাকার উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত সংযুক্ত করে। এটি পল্লবী ও

মিরপুরের ব্যস্ত এলাকা দিয়ে গেছে। লাইন-৬-এ ১৬টি স্টেশন এবং একটি রক্ষণাবেক্ষণ ডিপো রয়েছে।

ইন্টিগ্রেটেড ইএন্ডএম সিস্টেমের কাজগুলোর মধ্যে ভায়াডাক্টে ব্যালাস্টলেস ট্র্যাকের কাজ, ডিপোতে ব্যালাস্টেড ট্র্যাক, ১৫০০ভি ডিসি ট্র্যাকশন সাব স্টেশন (টিএসএস), ডিসি ওভারহেড ক্যাটেনারি সিস্টেম (ওসিএস), এনার্জি স্টোরেজ সিস্টেম (ইএসএস), যোগাযোগ ভিত্তিক ট্রেন নিয়ন্ত্রণ (সিবিটিসি) জড়িত। সিগন্যালিং সিস্টেম, টেলিকমিউনিকেশন সিস্টেম এবং এলটিই, স্বয়ংক্রিয় ভাড়া সংগ্রহ সিস্টেম (এএফসি), প্ল্যাটফর্ম স্ক্রীন ডোর, লিফট, এসকেলেটর এবং সামগ্রিক সিস্টেম ইন্টিগ্রেশনের ওপর ভিত্তি করে রেডিও যোগাযোগ।

প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে ইএইচভি ক্যাবলিং, জিআইএস ভিত্তিক রিসিভিং সাব স্টেশন (আরএসএস), ৩৩কেভি কেবল রিং মেইন, অক্সিলিয়ারি সাব স্টেশন (এএসএস) এবং এসসিএডিএ সিস্টেম।

এমআরটি প্রকল্পে স্বয়ংক্রিয় ট্রেন অপারেশন (এটিও) মোড, এলটিই-ভিত্তিক রেডিও যোগাযোগ এবং পুনর্জন্মমূলক ব্রেকিং ব্যবহার করার জন্য একটি এনার্জি স্টোরেজ সিস্টেম সহ বেশ কয়েকটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি রয়েছে।

এলঅ্যান্ডটি সিইও এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর এসএন সুব্রহ্মণ্যন এই অর্জন সম্পর্কে বলেছেন, ‘প্রকল্পটি সামগ্রিক ইন্টিগ্রেশন সহ সম্পূর্ণ মেট্রো সিস্টেমের কাজগুলো পরিচালনা করার আমাদের সক্ষমতার পুনর্নিশ্চিতকরণ, এবং বিশ্বব্যাপী রেলওয়ের অন্যতম প্রধান রেলওয়ে সিস্টেম ইন্টিগ্রেটর হওয়ার প্রমাণপত্র।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আত্মবিশ্বাসী যে এই সাফল্য আমাদের এই জগতে আসন্ন বিদেশি এবং অভ্যন্তরীণ প্রকল্পগুলো কার্যকর করার জন্য ভাল অবস্থানে রাখবে।’

দীর্ঘমেয়াদী মূল্যায়ন (এলটিই) সিস্টেম সহ মেট্রো প্রকল্পে বেশ কয়েকটি উন্নত সিস্টেম ইনস্টল করা হয়েছিল।

যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে, দুই ট্রেনের মধ্যে 3-মিনিট হেডওয়ে সহ মেট্রো অপারেশনগুলোকে সক্ষম করার জন্য কমিউনিকেশন বেসড ট্রেন কন্ট্রোল(সিবিটিসি) সিগন্যালিং সিস্টেম রয়েছে। যেখানে কোনও ট্রেনের সংঘর্ষ এড়াতে স্বয়ংক্রিয় ট্রেন সুরক্ষা ব্যবস্থা রয়েছে।

ইপিসি প্রকল্প হাই-টেক ম্যানুফ্যাকচারিং এবং পরিষেবাগুলোতে নিযুক্ত ভারতীয় বহুজাতিক কোম্পানি লারসেন অ্যান্ড টুব্রো বিশ্বব্যাপী ৫০টিরও বেশি দেশে কাজ করে।

ভারতের বহুজাতিক নির্মাণ কোম্পানি, সৌদি আরব, কাতার এবং মরিশাস সহ বিভিন্ন দেশে মেট্রো প্রকল্প এবং মেট্রো সিস্টেম সফলভাবে বাস্তবায়ন করেছে।

এল অ্যান্ড টি’র সম্পন্ন করা প্রকল্প এবং সিস্টেমগুলোর মধ্যে রয়েছে সাড়ে ২৯ কিমি মরিশাস লাইট রেল সিস্টেম,৪১কিমি রিয়াদ মেট্রো লাইন-তিন হাজার ১৫১-কিমি রিয়াদ মেট্রো লাইন এক এবং দুই (সৌদি আরব) এবং ১১ দশমিক ছয় কিমি দোহা মেট্রো-গোল্ড লাইন (কাতার)।

—ইউএনবি