June 15, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, March 14th, 2024, 7:54 pm

মারা গেলেন নারী ফুটবল দলের খেলোয়াড় রাজিয়া সুলতানা

সন্তানের জন্ম দেওয়ার পর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন অনুর্ধ্ব-১৯ জাতীয় নারী ফুটবল দলের খেলোয়াড় রাজিয়া সুলতানা।

বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে বাড়ি থেকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

রাজিয়া সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার লহ্মীনাথপুর গ্রামের মৃত নূরালী সরদারের মেয়ে।

রাজিয়া হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন কালিগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. গোলাম মোস্তফা।

রাজিয়া সুলতানার ভাই মো. নজরুল ইসলাম সরদার জানান, গত বুধবার রাত ১০টার দিকে কালিগঞ্জের লক্ষীনাথপুরে বাবার বাড়ি স্বাভাবিকভাবে পুত্রসন্তানের জন্ম দেন রাজিয়া। পরে তার শরীর অসুস্থ হয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে কালিগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

রাজিয়ার সদ্যজাত পুত্র সন্তান সুস্থ আছে বলেও জানান রাজিয়ার ভাই নজরুল।

তিনি আরও জানান, উপাকুড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা ফুটবল টিমে খেলার সুবাদে রাজিয়ার পরিচিত হয়ে উঠেন। তিনি কুশুলিয়া কলেজিয়েট স্কুল থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনার পাশাপাশি ফুটবল খেলতেন।

২০২০ সালে চট্টগ্রামের কাপ্তাই এলাকার পোশাক কারখানার কর্মকর্তা ইয়াম রহমানের সঙ্গে রাজিয়ার বিয়ে হয়।

নজরুল ইসলাম আরও জানান, রাজিয়া সুলতানা পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট। তিনি অনুর্ধ্ব-১৯ জাতীয় নারী ফুটবল দলের সদস্য ছিলেন। অনুর্ধ্ব-১৪ দলে খেলা শুরু করে দেশে ও দেশের বাইরে ভারত, চায়না, ভুটান, নেপাল, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর, পাকিস্তান, তাজাকিস্তান ও ইরানসহ বিভিন্ন দেশে ফুটবল খেলে খ্যাতি অর্জন করেছেন।

বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পুরস্কারও নিয়েছেন রাজিয়া।

কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহীন নারী ফুটবলার রাজিয়া সুলতানার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদ মেহেদি জানান, ফুটবলার রাজিয়া সুলতানা দরিদ্র পরিবারের মেয়ে। প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ফুটবল প্রতিযোগিতায় সেরা খেলোয়াড় ছিলেন রাজিয়া। তার অকাল মৃত্যুর খবরে আমরা শোকাহত।

বিয়ের পরে গত এক বছর তিনি খেলার বাইরে ছিলেন বলে জানান উপজেলা চেয়ারম্যান।

বৃহস্পতিবার আছরের নামাজের পর বাড়ির পাশের মসজিদের মাঠে নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে রাজিয়ার মরদেহ দাফন করা হয়।

—–ইউএনবি