May 29, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, March 18th, 2024, 9:08 pm

ম্যানইউর জন্য লিভারপুলের বিপক্ষে জয় ‘টার্নিং পয়েন্ট’

অনলাইন ডেস্ক :

মৌসুমে দুর্দান্ত ছন্দে থাকা লিভারপুলকে হারাতে পারা এরিক টেন হাগের চোখে অনেক বড় অর্জন। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচের মতে, ইয়ুর্গেন ক্লপের দলের বিপক্ষে জয় তাদের জন্য হতে পারে টার্নিং পয়েন্ট। টেন হাগ বললেন, এখন যেকোনো দলকে হারাতে আরও আত্মবিশ্বাসী থাকবেন তারা। এফএ কাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে রোববার ১২০ মিনিটের রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে লিভারপুলকে ৪-৩ গোলে হারায় ইউনাইটেড। এই জয়কে দলের জন্য আত্মবিশ্বাসের সবচেয়ে বড় রসদ হিসেবে দেখছেন টেন হাগ। ম্যাচের আগে ফেভারিটের প্রশ্নে লিভারপুলই ছিল এগিয়ে।

কারণও আছে যথেষ্ট, মৌসুমে বেশ ধারাবাহিক তারা। অন্য দিকে, নিজেদের খুঁজে ফিরছে ইউনাইটেড। তবে ছন্দে থাকা লিভারপুলের বিপক্ষে চোখে চোখ রেখে লড়াই করেছে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের দলটি। পরিসংখ্যানেও তা পরিষ্কার। বল দখলে এগিয়ে থাকা লিভারপুল গোলের উদ্দেশ্যে শট নেয় ২৫টি, আর ইউনাইটেড নেয় ২৮টি শট। লক্ষ্যে দুই দলেরই শট ছিল সমান ১১টি করে। লিভারপুলকে হারিয়ে এফএ কাপের সেমি-ফাইনালে ওঠা ইউনাইটেড এখন স্বপ্ন দেখছে অন্তত একটি শিরোপা জিতে মৌসুম শেষ করার। টেন হাগ মনে করছেন, চলতি মৌসুমে ঘুরে দাঁড়াতে তাদের সাহায্য করতে পারে এই জয়। “এটা সেই মুহূর্তটি (ঘুরে দাঁড়ানোর) হতে পারে।

এই জয় দলকে দারুণ কিছু করার বিশ্বাস ও শক্তি যোগাতে পারে। লিভারপুলকে হারাতে পারলে আপনি যেকোনো দলকে হারাতে পারবেন।” টেন হাগের মতে, লিভারপুল বিপক্ষে ম্যাচের প্রথম আধা ঘণ্টায় এবারের মৌসুমে নিজেদের সেরা পারফরম্যান্সটা করেছে ইউনাইটেড। এই সময়েই স্কট ম্যাকটমিনের গোলে এগিয়ে যায় দলটি। কিন্তু প্রথমার্ধের শেষ দিকে যেন খেই হারিয়ে ফেলে ইউনাইটেড। চার মিনিটের মধ্যে আলেক্সিস মাক আলিস্তের ও মোহামেদ সালাহর গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল। ব্যবধান ধরে রেখে জয়ের পথে থাকা দলটির আশা গুঁড়িয়ে দেন আন্তোনি। নির্ধারিত সময়ের শেষ দিকে সমতা টেনে ম্যাচ অতিরিক্ত সময়ে টেনে নেন ব্রাজিলিয়ান এই ফুটবলার। সেখানে হার্ভি এলিয়টের গোলে ফের এগিয়ে যায় লিভারপুল।

কিন্তু তাদের জয়ের স্বপ্ন ধূলিসাৎ করে দেন মার্কাস র‌্যাশফোর্ড ও আমাদ দিয়ালো। এমন জয়ের পরও ইউনাইটেডের পারফরম্যান্স নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। টেন হাগ অবশ্য বাহবা দিচ্ছেন দলকে। “আমি বুঝতে পারছি না কেন (তাদের দৃঢ়তা নিয়ে প্রশ্ন করা হচ্ছে)। ওরা অসাধারণ দৃঢ়। তাদের মধ্যে দৃঢ়প্রতিজ্ঞতা দেখছি।” এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্ব থেকেই বাদ পড়েছে ইউনাইটেড। প্রিমিয়ার লিগেও ভালো অবস্থায় নেই তারা। শিরোপার দৌড়ে নেই বললেই চলে। ২৮ ম্যাচে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে আছে ষষ্ঠ স্থানে। ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে থাকা অ্যাস্টন ভিলা সবশেষ ম্যাচে ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের সঙ্গে ১-১ ড্র করেছে।

আর পঞ্চম স্থানে থাকা টটেনহ্যাম হটস্পার (৫৩ পয়েন্ট) ৩-০ গোলে হেরে গেছে ফুলহ্যামের কাছে। এই দুই দলের পয়েন্ট হারানোয় বেশ খুশি টেন হাগ। ইউনাইটেড কোচ মনে করছেন, লিগে সেরা চারে থেকে পরের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে তাদের। “এই মৌসুমে আমরা অনেক খারাপ সময়ের সম্মুখীন হয়েছি এবং প্রতিবারই আমাদের মানিয়ে নিতে হয়েছে। গত কয়েক ম্যাচ ধরে আমরা যেমন খেলছি তা নিয়ে আমি গর্বিত, তবে আমরা এখনও পিছিয়ে আছি। আমি খুশি যে টটেনহ্যাম ও অ্যাস্টন ভিলা পয়েন্ট হারিয়েছে। সেমি-ফাইনালে উঠতে পেরে আমরা খুশি, তবে আমাদের ছন্দ ধরে এগিয়ে যেতে হবে।” আন্তর্জাতিক বিরতির পর আগামী ৩০ মার্চ লিগ ম্যাচে ব্রেন্টফোর্ডের মুখোমুখি হবে ইউনাইটেড।