July 18, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, February 7th, 2024, 3:22 pm

শ্রীবরদীতে টমোটে ও বেগুন চাষ করে ভাগ্য বদল করেছে দুজন কৃষক

জেলা প্রতিনিধি, শেরপুর (শ্রীবরদী):

শেরপুরের শ্রীবরদীতে টমোটে ও বেগুন চাষ করে ভাগ্য বদল করেছে কৃষক ফুয়াদ হাসান ও দেলোয়ার হোসেন। চলতি মৌসুমে টমেটো ও বেগুন বিক্রি করে প্রায় ৩ লক্ষ টাকা আয় করেছেন তারা। তাঁদের বাড়ি শ্রীবরদী পৌরসভার দক্ষিণ পোড়াগড় গ্রামে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ২০ শতক জমিতে বিউটি ফুল-২ টমোটো ও ৬০ শতাংশ স্থানীয় উন্নত জাতের বেগুন চাষ করেছেন। ফলন খুব ভালো হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, কৃষি অফিস থেকে টমোটোর চারা, জৈব বালাইনাশক, জৈব সার সহ প্রয়োজনী পরামর্শ ও প্রযুক্তি সহায়তা দেওয়া হয়েছে। বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনের জন্য কৃষি বিভাগের পরামর্শে জমিতে কীটনাশক ব্যবহার না করে সেক্স ফেরোমন ও হলুদ ফাঁদ ব্যবহারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কৃষক দেলোয়ার হোসেন বলেন, টমোটোর ফলন ভালো হয়েছে। এবার দামও বেশ ভালো। প্রতিদিন ৩-৪ মণ টমোটো বাজারে বিক্রি করছি। ২০ শতক জমি থেকে ইতোমধ্যে এক লাখ টাকার ওপরে টমোটো বিক্রি আয় হয়েছে। আরো অন্তত ৫০-৬০ হাজার টাকার টমোটো বিক্রি করতে পারবেন বলে তিনি জানান। টমোটো খেতের পাশেই ৬০ শতাংশ জমিতে বেগুন চাষ করেছেন। প্রতিদিন প্রায় ৪-৫ মণ বেগুন তুলে বাজারে বিক্রি করেন। এখন পর্যন্ত তিনি প্রায় ২ লাখ টাকার বেগুন বিক্রি করেছেন।

উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান বলেন, পলিনেট হাউস থেকে চারা উৎপাদন করে রোপন করেছেন। কৃষি অফিস থেকে নিয়মিত পরামর্শ ও প্রযক্তি সহায়তা দেওয়া হয়েছে।
উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাবরিনা আফরিন বলেন, কৃষক ফুয়াদ হাসান পলিনেট হাউসের মাধ্যমে সুস্থ্য সবল চারা উৎপাদন করে রোপন করায় টমোটো ও বেগুনের ফলন অনেক ভালো হয়েছে। এবার সবজির দাম ভালো থাকায় কৃষক অধিক লাভবান হয়েছে। এতে করে পলিনেট হাউসের দিকে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে।